মেসি ভক্তের এ কেমন পাগলামী

আর মাত্র ২দিন পরে শুরু হচ্ছে ২০১৮ রাশিয়ার বিশ্বকাপ। তবে বিশ্বকাপের সাজে সেজেছে ফুটবল বিশ্ব।আর কদিন পর আর্জেন্টিনার ফুটবল রাজপুত্রের জন্মদিন৷ মেনু থেকে শুরু করে বিশেষ অনুষ্ঠানে কী কী আয়োজন রাখা হবে সেই নিয়ে প্রস্তুতিতে নেমে পড়েছে ভারতের এই পরিবার৷ ইতিমধ্যেই বিশ্বকাপের জন্য তাঁদের বাড়ি সেজে উঠেছে নীল সাদা রঙে৷ দূর থেকে যা দেখলে মনে হতেই পারে, খাস পশ্চিমবঙ্গে এযেন এক আর্জেন্তাইন মিউজিয়াম৷ মেসি মিউজিয়াম বললেও ভুল বলা হবে না৷

একটা বাড়ির প্রতিটি কোণায় কোণায় মেসি-আর্জেন্তিনা। সেই সঙ্গে তাঁর নীল সাদা জার্সির রঙে মুড়ে ফেলা হয়েছে দরজা-জানলা-দেওয়াল৷ বাদ পড়েনি বাড়ির আলমারিও৷ ছাদের পানির ট্যাঙ্কটিও রাঙিয়ে দেওয়া হয়েছে আর্জেন্তাইন জার্সির রঙে৷ এমন নজির বিশ্বে বোধহয় এই প্রথম৷ আর্জেন্টিনা নিয়ে শিবের এই পাগলামি এক দিনের নয়, ২০০৯ সালে মেসি যখন কলকাতায় এসেছিলেন সেবারই নীল সাদা রঙে বাড়ি রাঙিয়ে তুলেছিলেন শিবশঙ্কর পাত্র ৷ এরপর ২০১৪ বিশ্বকাপের সময় বাড়িকে নতুন করে মেসির দেশের জার্সির রঙে রাঙিয়ে তোলেন৷ দুয়ারে আরও একটা বিশ্বকাপ৷ তাই এবার ফের পাত্র বাড়িকে উৎসবের আবহ৷ নতুন করে সাজিয়ে তুলেছেন শিবশঙ্কর৷

শুধু বাড়ি সাজানো নয়, প্রতি বছর আর্জেন্টাইন রাজপুত্রের জন্মদিনও সেলিব্রেট করে এই পরিবার৷ বাড়িতে মেসির জন্য তৈরি হয় নাআন আয়োজন৷ মেসি তাঁর বাড়িতে কোনও দিনও আসেননি তবু মনে প্রাণে ২৪ জুন আসলেই পাত্র পরিবারে তাঁদেরই একজনের জন্মদিন পালনে মেতে ওঠে৷ শেষ কয়েক বছরে মেসি এখন তাঁদের ঘরের ছেলে৷ জন্মদিন আসলেই নিজে হাতে রান্না করে মেসির ছবির সামনে বাহারি পদ সাজিয়ে দেন শিবশঙ্করের স্ত্রী স্বপ্নাদেবী।