bd24report.com | বিশেষ প্রতিবেদন

'আফা আমারে ঈদ মোবারক লেখে দেইন'

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আর্তমানবতার সেবায় এগিয়ে চলেছে গোমতী। ১২ ই জুন, মঙ্গলবার যেন তারার মেলা বসেছিলো রাজধানী ঢাকার কাওরান বাজার এলাকার পান্থকুঞ্জ পার্কে ! ছোটবড় শতাধিক শিশুকিশোর, তাদের প্রত্যেকের হাতে লেগেছিল কাঁচা মেহেদী। সুবিধা বঞ্চিত এ সকল শিশুকিশোররাই ছিলো এদিনের অতিথি। সকলের মুখে হাসি, উৎফুল্ল সবাই। এমনি চিত্র দেখা গেলো ‘গোমতী’ সংগঠন আয়োজিত ‘পথের মানুষের ঈদ আয়োজন ও পথশিশুদের মেহেদী উৎসব’ অনুষ্ঠানে। ‘শিশুকিশোর ও পথের মানুষদের সাথে এ ঈদ আয়োজনে প্রধান অতিথি এই শিশুরাই। তাদেরকে বেশ আনন্দ দিতে পেরে খুব ভালো লাগার কথাই জানিয়েছেন সংগঠনের সকল নিবেদিত সদস্যরা। তাদের সাথেই একাত্মতা ঘোষণা করেই সাথে ছিলেন ইউনাইটেড কমিউনিকেশন সার্ভিস এর ডিরেক্টর শাহ জামাল খান বার্তাবাজারের সম্পাদক ও প্রকাশক নাসির উদ্দিন পাটোয়ারী প্রমুখ। ৪ ঘন্টা ব্যাপী আয়োজনের শুরুতেই শিশুদের বিভিন্ন পরিবেশনা উঠে আসে , অতঃপর শুরু হয় তাদের হাতে মেহেদী লাগানোর হিড়িক। এ আনন্দঘন মুহূর্তগুলো ছবিতে বেধেঁছেন সংগঠনের সদস্যরা। এ ছবি যেন অগ্রিম ঈদের আলাদা আনন্দ। পরক্ষনেই সকল পথের মানুষদের সাথে মতবিনিময় শেষে তাদেরকে ঈদের দিনের সেমাই , দুধ-চিনি সহ যাবতীয় দ্রব্যাদি দিয়ে ঈদের আনন্দ ভাগ করে নেন সবাই। এ আনন্দ যেন শেষ হবার নয়। সেই মুহূর্তগুলো সামান্য ছবিতে প্রকাশেই শেষ হবার নয়। অনুষ্ঠানে বক্তারা সংগঠনের উদ্যোগে সুবিধা বঞ্চিত এই মানুষদের নিয়ে এ ধরণের কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানিয়ে ভবিষ্যতে পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। তারা বলেন – ‘এদেশের অনেক মানুষ, অনেক শিশুকিশোর ও অনেক পরিবার এখনো ছিন্নমূল এবং বিভিন্ন ভাবেই তারা সুবিধা বঞ্চিত রয়ে গেছে। তাদের অনেকেই বিভিন্ন কারণে বিপথগামী হচ্ছে, যা দেশ ও জাতির জন্য মারাত্মক হুমকি। সেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘গোমতী’ এই সকল মানুষদের নিয়ে যে মহত উদ্দেশ্যে কাজ করছে, আমরা তাদের আন্তরিক সাধুবাদ জানাই। ‘গোমতী’র সকল সদস্যদের মতো তরুণরা যদি সমাজের সর্বক্ষেত্রে এরকম দায়িত্বশীলতা নিয়ে এগিয়ে আসে, তাহলে এই দেশ সত্যিকার অর্থেই ‘সোনার বাংলা’য় পরিণত হবে।’ তারা সুবিধা বঞ্চিত এসব মানুষদের মাদক থেকে এবং সকল ধরণের সামাজিক ক্রাইম থেকে দূরে রাখতে ‘গোমতী’ সহ সমাজের সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। পাশাপাশি সুবিধা বঞ্চিত মানুষদের নিয়ে ‘গোমতী’র বিভিন্ন কর্মকান্ডের প্রশংসা করে তাদের পাশে থাকার ও প্রতিশ্রুতি দেন। ‘গোমতী’র সদস্যরা বলেন, আমরা একঝাঁক নিবেদিত প্রাণ, মেধাবী এবং সচ্ছল তরুণের সমন্বয়ে গড়ে তুলেছি গোমতী নামক একটি সংগঠন। এই সংগঠনটি সুবিধা বঞ্চিত মানুষদের সহযোগিতা দিয়ে পাশে থাকার পাশাপাশি আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ করতে চায়। পথশিশুদের পুনর্বাসন, আবাসিক শিক্ষার ব্যবস্থাকরণ, কাউন্সেলিং, মাদক এবং ক্রাইম থেকে পুনর্বাসন, কারিগরি ও নৈতিক শিক্ষাপ্রদান সহ বিভিন্ন কর্মকান্ড পরিচালনা করবে গোমতী। তারা আরো বলেন, আমরা যারা গোমতীর ফাউন্ডার তারা সকলেই নিজের টাকায় ঐ সব সুবিধা বঞ্চিত মানুষের পাশে অনেক দিন ধরে কাজ করে যাচ্ছি। সামনে বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়ে আমরা আবার হাজির হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সকলে প্রার্থনা করবেন, আমরা যেন সবসময় এমনি ভাবে মানুষের সেবায় নিজেদের বিলিয়ে দিতে পারি।