২০, নভেম্বর, ২০১৭, সোমবার | | ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

‘তরুণরাই আগামী দিনের চাকরিদাতা’ বি’ইয়া’র শিক্ষণ কর্মশালায় বিশিষ্টজনদের মতামত

২৫ আগস্ট ২০১৭, ১২:০৮

বাংলাদেশ ইয়ুথ এন্টারপ্রাইজ এ্যাডভাইস এন্ড হেল্পসেন্টার (বি’ইয়া) কমিক রিলিফ-এর সহযোগীতায় ৪ বছর মেয়াদী টার্নিং জব সিকার্স ইন্টু জব ক্রিয়েটর্স ইন বাংলাদেশ প্রকল্পটি ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের আওতায় বাস্তবায়ন করছে।  এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য হচ্ছে, ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী তরুণ নারী ও পুরুষ-কে উদ্যোক্তা সম্পর্কিত ধারণা প্রদান করা এবং তরুণদেরকে উদ্যোক্তায় পরিণত করতে উদ্বুদ্ধ করা।  অদ্য ২৪ আগষ্ট, ২০১৭ তারিখে প্রকল্পটির ২য় বছর সমাপ্তীর প্রাক্কালে বি’ইয়া একটি
শিক্ষণ বিনিময় কর্মশালার আয়োজন করে।  এতে উপস্থিত ছিলেন বি’ইয়ার সম্মানিত প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারপার্সন জনাব আব্দুল মুঈদ চৌদুরী, সম্মানিত সদস্য জনাব ওবাইদুর রব, জনাব আহমাদুল হক, জনাব আরমিনা হক ও ব্যারিস্টার শাহারিয়ার সাদাত।  এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বি’ইয়া’র অভিজ্ঞ মেন্টরগণ, তরুণ উদ্যোক্তা এবং বি’ইয়ার কর্মকর্তাবৃন্দ।  কর্মশালায় প্রকল্পের বিগত দুই বছরের কর্মকান্ড, শিখন ও অভিজ্ঞতা তুলে ধরা হয়।  শিখন কর্মশালাটি উদ্ভোবন হয় বি’ইয়ার শ্লোগান “চাকরী প্রার্থী হবে চাকরীদাতা” শীর্ষক একটি পরিবেশনা দিয়ে।  মূলত এই পরিবেশনার মাধ্যমে তুলে তরুণ উদ্বোধনী পরিবেশনা ‘তরুণরাই হবে চাকরি দাতা’ শীর্ষক নাটকের মাধ্যমে উপস্থাপনা করা হয়।  প্রকল্প ব্যবস্থাপক মেহেদী হাসান-এর নির্দেশনায় এই পরিবেশনাতে আরও উঠে আসে আমাদের মু্িক্তযুদ্ধের চেতনা, যাকে ধারণ করে আজকের তরুণ সমাজ বাংলাদেশকে অর্থনৈতিক মুাক্তর দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।  তাদের এই এই পথ চলায় সহযাত্রী হিসেবে বি’ইয়া সবসময় তরুনদের অনুপ্রেরণা ও সহযোগীতা দিতে অঙ্গীকারবদ্ধ। 

কর্মশালায় উপস্থিত তরুণদের ব্যবসা সংক্রান্ত সফলতা ও প্রতিবন্ধকতা বিষয়ক আলোচনা পরিচালিত হয়।  এতে বি’ইয়া’র তরুণ উদ্যোক্তারা প্রাণবন্ত আলোচনা করেন।  তরুণ উদ্যোক্তাদের মেন্টরগণ তাঁদের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে বলেন, তরুণ উদ্যোক্তাদেরকে ব্যবসা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ ও দিক নির্দেশনা তাদের জন্য নতুন অভিজ্ঞতা ও শিক্ষনীয় বিষয়।  এ ধারা মেন্টরগণ চালিয়ে নিবেন।  এছাড়াও বিভিন্ন সফল নারী ও পুরুষ উদ্যোক্তা এবং যারা এখনও ব্যভসা শুরু করেননি তারাও তাদের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন।  কর্মশালা শেষে তরুণ উধ্যোক্তা তৈরি বিভিন্ন পণ্যের প্রদর্শনী করা হয়। 

ব্যবসার ক্ষেত্রে পেশাদারিত্ব ও তরুণ উদ্যোক্তা তৈরির প্রয়াসকে সামনে রেখে বি’ইয়ার ধারাবাহিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে মেন্টরিং কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের তরুণ উদ্যোক্তা উন্নয়নের ক্ষেত্রে অনন্য দৃষ্ঠান্ত স্থাপন করতে চায় বি’ইয়া।  এই উদ্যোগে সামিল সকল মেন্টর ও মেন্টিদেরকে ব্যবসা উন্নয়নে এগিয়ে যাবার আহবান জানান বি’ইয়া’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারপার্সন জনাব আব্দুল মুঈদ চৌধুরী।  বাংলাদেশের বেকার ও আংশিক বেকার তরুণ নারী-পুরুষদের উদ্যোক্তায় পরিণত করার ক্ষেত্রে এই ধরণের উদ্যোগ সার্থক হবে বলে মতামত ব্যক্ত করেন জনাব ওবায়দুর রব।  এছাড়াও জনাব আহমাদুল হক বলেন, তরুণদের মধ্যে আস্থা ও আতœবিশ্বাস সৃস্টি বি’ইয়া’র অভিজ্ঞ মেন্টরগণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।  নিজেদের অভিজ্ঞতা দিয়ে তরুণ উদ্যোক্তাদের পথ নির্দেশনা দিয়ে বেকারত্ব দূরীকরণ ও দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখতে পারবে বলে তার মনে করেন উপস্থিত বক্তিগর্ণ। 
কর্মশালাটি পরিচালনা করেন বি’ইয়ার প্রকল্প ব্যবস্থাপক জনাব মেহেদী হাসান ও জনাব শারমিন জাহান চৌধুরী।