২৬, সেপ্টেম্বর, ২০১৭, মঙ্গলবার | | ৫ মুহররম ১৪৩৯

বাসাইলে ৮৬ ব্যাচের ঈদ পূর্নমিলনী ও পারিবারিক মিলন মেলা অনুষ্ঠিত।

০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৩:৪৯

বাসাইল গোবিন্দ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ১৯৮৬ সালের এসএসসি ব্যাচের ঈদ পূর্নমিলনী ও পারিবারিক মিলন মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।  ঈদুল আযহার দ্বিতীয় দিনে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে এই মিলন মেলার আয়োজন করা হয়। ।  ৮৬ ব্যাচের ঈদ পূর্নমিলনী ও পারিবারিক মিলন মেলা বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি ও সরকারী সাদৎ কলেজের অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মোশারফ হোসেনর সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তৎকালীন সময়ের প্রধান শিক্ষক মিঞা মো. আবুল কাশেম। 
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক প্রধান শিক্ষক(ভারপ্রাপ্ত) মো. রমজান আলী ভুইয়া, সাবেক প্রধান শিক্ষক আলহাজ মো. ওয়াজেদ আলী খানশুর,বাবু দ্বিজেন্দ্র সাহা রায়, সিনিয়র শিক্ষক মুহাম্মদ ওয়ালিউল্লাহ,ও বাবু নিমাই চন্দ্র সুত্রধর। 


অনুষ্ঠানে প্রথমে অতিথিবৃন্দ্রদেরকে ক্রেস্ট দিয়ে সংবর্ধণাদেন ৮৬ ব্যাচের কৃতি শিক্ষার্থীরা। দুই পর্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানের ১ম পর্বে স্মৃতিচারণ ও ২য় পর্বে বাউল গানের আয়োজন করেন আয়োজকরা। 

উল্লেখ্য যে বাসাইল গোবিন্দ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮৬ ব্যাচের কৃতি শিক্ষার্থীরা বর্তমানে দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে দেশ ও জাতীর সেবায় নিয়জিত রয়েছেন। 

এদের মধ্যে রয়েছেন ভোলা জেলার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিট্রেট মো. আক্তারুজ্জামন বাবুল, স্বররাষ্ট্র মন্ত্রানালয়ের উপ-সচিব মো. আমিনুল ইসলাম, সরকারী সাদৎ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মোশারফ হোসেন, বাংলাদেশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. শওকত আলী, বাসাইল জোবদো –রুবেয়া মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মো. মশিউর রহমান আপেল,ওয়ারেন্ট অফিসার মো. আলা উদ্দিন, রোড রানার ও তাসিন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সরকার আরিফুজ্জামান ফারুক, বাসাইল উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কাজী অলিদ ইসলাম, উপজেলা জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র সভাপতি এনামুল করিম অটল সহ আরো কৃতি শিক্ষার্থীরা এই ব্যাচের ছাত্র ছিলেন ।  প্রথম পর্বের অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন মো. রফিকুল ইসলাম। 

৮৬ ব্যাচের এই মিলন মেলা প্রতি বছর ঈদুল আযহার দ্বিতীয় দিন আয়োজন করেন আয়োজকরা ।  এতে সকলের পরিবারের সদস্যরাও উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।