১৬, ডিসেম্বর, ২০১৭, শনিবার | | ২৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

মাহিরার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ছবি ফাঁস নিয়ে মুখ খুললেন রণবীর

২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০১:৪০

বিনোদন ডেস্ক- গত দু’দিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড়, মাহিরা খান এবং রণবীর কপূরের একটা ছবি নিয়ে।  মাহিরাকে ট্রোলও করা হয়েছে যথেষ্ট।  রণবীর এবার মুখ খুললেন মাহিরার সমর্থনে। 

ছবিতে দেখা গিয়েছে, নিউ ইয়র্কের এক হোটেলের সামনে বসে রণবীর এবং মাহিরা ধূমপান করছেন।  মাহিরার পরনে সাদা হল্টার ড্রেস।  সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিটা ভাইরাল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই অনেকে মাহিরার নিন্দে-মন্দ শুরু করেন।  ধূমপান করা এবং খোলামেলা পোশাক পরা— দু’টোই ট্রোলদের নিশানা হয়ে
দাঁড়ায়।  ধূমপান অবশ্য রণবীরও করছিলেন, কিন্তু তাঁকে ট্রোল্‌ড হতে হয়নি!

তবে নেটিজেনদের অনেকে পাশেও দাঁড়ান মাহিরার।  বলেন, মাহিরা প্রাপ্তবয়স্ক।  নিজের মতো করে জীবন চালানোর অধিকার রয়েছে তাঁর।  আলি জাফর, পরিণীতি চোপড়া এব‌ং বরুণ ধবনের মতো তারকারা বলেন, গোটা বিষয়টা ‘আনফেয়ার’।  রণবীর প্রথম থেকে চুপই ছিলেন।  তবে এবার তিনি রীতিমতো বিবৃতি দিয়ে মাহিরার পাশে দাঁড়িয়েছেন। 

রণবীরের বয়ান, ‘‘মাহিরাকে গত কয়েক মাস ধরে ব্যক্তিগতভাবে চিনি আমি।  যথেষ্ট সম্মান করি।  ওর অ্যাচিভমেন্টগুলোর জন্য এবং ও মানুষ হিসেবে যেমন, সে জন্যও।  যেভাবে ওকে জাজ্‌ করা হচ্ছে, সেটা খুবই অনুচিত বলে মনে হচ্ছে।  আরও কষ্ট হচ্ছে লিঙ্গবৈষম্যের প্রকোপটা দেখে।  ও শুধু মহিলা বলেই এটা করা হচ্ছে।  আমি সকলকে অনুরোধ করছি, নেতিবাচকতা না ছড়িয়ে সুন্দরভাবে বাঁচতে। ’’ পরে ‘পি এস’ দিয়ে লেখেন, ‘‘ধূমপান এবং ঘৃণা, দুই-ই স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। ’’

মাহিরা এবং রণবীরের বন্ধুত্ব নিয়ে এমনিতেই চর্চা চলছে যথেষ্ট।  এই ছবির প্রেক্ষিতে রণবীরের বাবা ঋষি কপূরকেও প্রসঙ্গটা নিয়ে জিগ্যেস করা হয়েছিল।  তিনি অবশ্য বলেছেন, কিছুই জানেন না এ ব্যাপারে।  তবে তাঁর মতে, একজন তারকা হিসেবে রণবীর কার সঙ্গে দেখা করবেন সেটা একান্তই রণবীরের ব্যাপার।   অন্য কারও এ বিষয়ে কৌতূহল দেখানো উচিত নয়।