১৮, অক্টোবর, ২০১৭, বুধবার | | ২৭ মুহররম ১৪৩৯

রোহিঙ্গা মুসলমানদেরকে আপনারা সবাই সাহায্য করুন: ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত

২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৮:৫৬

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্য বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান  জাতিসংঘ শিশু তহবিলের (ইউনিসেফ) শুভেচ্ছাদূত হিসেবে রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন।  উখিয়ায় এক শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শনের সময় এক ভিডিওবার্তায় সাকিব বাংলাদেশের সর্বস্তরের মানুষকে মিয়ানমার থেকে সেনা আগ্রাসনের শিকার হয়ে পালিয়ে আসা এই রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন। 

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর দেশটির সেনাবাহিনী নির্বিচারে
নির্যাতন-নিপীড়ন ও হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে যাচ্ছে।  আর সে কারণে বাংলাদেশে পালিয়ে এসে কক্সবাজার ও উখিয়ায় আশ্রয় নিয়েছেন সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা। 

অবশ্য জাতিসংঘের তথ্য অনুসারে এ সংখ্যা চার লাখ ৩০ হাজার।  জীবন বাঁচাতে পালিয়ে আসা এসব রোহিঙ্গা শরণার্থীর মধ্যে শিশুদের সংখ্যা প্রায় দুই লাখ।  প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী এ সংখ্যা মোট রোহিঙ্গা শরণার্থীর প্রায় ৬০ শতাংশ। 
 
মিয়ানমার-বাংলাদেশ সীমান্তে দুর্বিষহ জীবনযাপনরত রোহিঙ্গাদের দেখতে যান তিনি ইউনিসেফের দূত হিসেবে। ।  বিভিন্ন ক্যাম্প ঘুরে দেখে চলমান সঙ্কট উত্তরণের জন্য সবার সহায়তা চেয়েছেন তিনি। 

ইউনিসেফের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে দেয়া এক ভিডিওবার্তায় সাকিব বলেন, ‘আমি এখন এই রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আছি।  ইউনিসেফের সঙ্গে এসেছি।  পুরো জায়গাটা ঘুরে দেখেছি, দেখেছি তাদের দুর্বিষহ জীবনযাপনের অবস্থা।  আমি চাই আপনারা সবাই সাহায্য করুন। ’

২০১৩ সাল থেকেই ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে রয়েছেন সাকিব।  তারপর থেকেই জাতিসংঘের এ অঙ্গসংগঠনের হয়ে শিশুদের বিভিন্ন কার্যক্রমে অংশ নিয়ে থাকেন তিনি।  এবার নিপীড়িত রোহিঙ্গা শিশুদের জন্যও ইউনিসেফের কার্যক্রমে অংশ নিয়েছেন।  ক্যাম্প পরিদর্শনের সময় রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষা কার্যক্রমেও অংশ নেন সাকিব। 

এ সময় তিনি বলেন, ‘এখানে নারী ও শিশুর সংখ্যা অনেক বেশি।  এজন্য আপনাদের সাহায্য প্রয়োজন।  সাহায্য করতে ইউনিসেফের ওয়েবসাইটে গিয়ে ডোনেট বাটনে ক্লিক করুন ও সাহায্য করুন। ’

https://www.facebook.com/unicef.bd/videos/1703293803045140/