২২, নভেম্বর, ২০১৭, বুধবার | | ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

চাকরির জন্য ২০ হাজার বেকারের আবেদন

০৫ অক্টোবর ২০১৭, ০৪:৫১

যশোরে অনুষ্ঠিত হলে চাকরি মেলা।  আর সেই মেলাতে হাজির হতে দেখা গেল অসংখ্যক বেকার যুবকদের।  তারা সবাই এসছেন হাতে একটি সিভি নিয়ে।  উদ্দেশ্য ছিল একটি চাকরি ।  আর সেই অপেক্ষার যেন শেষ নেই। 

বায়োডাটা জমা দিতে সকাল থেকেই সফটওয়্যার পার্কে আসতে শুরু করে তরুণ তরুণীরা।  শহরের সব পথ যেন শেষ হয়েছিল হাইটেক পার্কে।  সংশ্লিষ্টদের ঘোষণা ছিল, মেলা উদ্বোধনের পর থেকেই স্টলে প্রার্থীদের বায়োডাটা জমা দিতে পারবে।  যাচাই বাছাই শেষে প্রার্থীদের ভাইভা নেবে প্রতিষ্ঠানগুলো। 
যোগ্যতা অনুযায়ী প্রার্থী নিয়োগ চূড়ান্ত করা হবে।  বেশিরভাগ কাজই আউটসোর্সিং আর ও বিদেশিদের সঙ্গে যোগাযোগ।  এজন্য ইংরেজিতে পারদর্শী ও আইটি বিষয়ে অভিজ্ঞদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে।  এ অঞ্চলের আইটি প্রফেশনালদের সাথে আইটি কোম্পানিগুলোর সরাসরি সংযোগ করে দেয়ার উদ্দেশ্যে হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এ মেলার আয়োজন করে। 

কিন্তু প্রায় ২০ হাজার চাকরিপ্রার্থীর চাপে ওই ঘোষণা থেকে সরে আসতে বাধ্য হয় আয়োজকরা।  এক পর্যায়ে পার্কের ক্যাম্পাসে কয়েকটি বাক্স দিয়ে তাতে বায়োডাটা জমা দেয়ার চাকরিপ্রার্থীদের চলে যেতে বলা হয়।  হ্যান্ড মাইক নিয়ে চাকরিপ্রার্থীদের প্রতি এই ঘোষণা দেন যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দিন শিকদার।  আর এই প্রক্রিয়া হতাশা ব্যক্ত করেছেন চাকরিপ্রার্থীরা।  আর স্টলদাতারাও জানিয়েছেন, যেভাবে সিভি সংগ্রহ করা হয়েছে।  তা কিভাবে যাচাই বাছাই হবে এবং কারা করবে তা তারা নিজেরাই বুঝতে পারছেন না।