২২, নভেম্বর, ২০১৭, বুধবার | | ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

যে কারণে ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের হৃদরোগের প্রবণতা কম

০৭ অক্টোবর ২০১৭, ১১:২৯

সম্প্রতি হৃদরোগ বিশেষজ্ঞরা হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোকজাতীয় হৃদরোগের বেশ কিছু কারণ খুঁজে পেয়েছেন।  হৃদরোগের অন্যতম কয়েকটি কারণ হল, অনিয়মিত জীবনযাত্রা, অস্বাস্থ্যকর ডায়েট, ওবেসিটি, পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের মধ্যে হৃদরোগ হওয়ার প্রবণতা, প্রভৃতি। 

পাশাপাশি গবেষকরা সমীক্ষা করে জানিয়েছেন যে, হৃদরোগের প্রবণতা ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের কম।  এবং ছেলেদের থেকে দেরিতে মেয়েরা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়। 

গবেষকরা জানাচ্ছেন, নারী-পুরুষের শরীরে হরমোন আলাদা
আলাদা রকমের হয়।  হরমোনের প্রভাবে মেয়েরা ছেলেদের থেকে দেরিতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়।  এছাড়াও তাঁরা জানাচ্ছেন, মেয়েরা ছেলেদের তুলনায় অনেক বেশি শরীরের দিকে নজর দেন, অনিয়মিত লাইফস্টাইলে তুলনায় কম চলেন। 

গবেষকরা ছেলেদের হৃদ-কোষ এবং মেয়েদের হৃদ-কোষের মধ্যে তফাত্‌ খুঁজে পেয়েছেন।  যাতে বোঝা যায়, হার্ট সংরক্ষণকারী হরমোন ইস্ট্রোজেনের পরিমান বেশি থাকে মেয়েদের শরীরে।  এবং হৃদপিণ্ডকে সুস্থ রাখার নিয়মও মেয়েরা বেশি মেনে চলে ছেলেদের তুলনায়। 

হার্ট ভালো রাখার উপায়

১) ধূমপান বন্ধ করতে হবে।  বা কম করতে হবে। 
২) মদ্যপান বন্ধ করতে হবে।  বা মদ্যপানে সংযত হতে হবে। 
৩) যথাযথ ঘুমের প্রয়োজন। 
৪) নিয়মিত শরীরচর্চা করতে হবে। 
৫) ডায়েট মেনে খাবার খেতে হবে। 
৬) অনিয়মিত লাইফস্টাইল চলবে না। 
৭) খাবারে নুন এবং চিনির পরিমান কম করতে হবে।