২২, নভেম্বর, ২০১৭, বুধবার | | ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজারের পথে খালেদা জিয়া

২৮ অক্টোবর ২০১৭, ১১:২৬

মিয়ানমার থেকে প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে আসা বাংলাদেশের কক্সবাজারে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের ক্যাম্প পরিদর্শন ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের উদ্দেশ্য ঢাকা থেকে রওনা দিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া। 
 
দলের সিনিয়র নেতাদের নিয়ে শনিবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে গুলশান চেয়ারপারসনের বাসভবন থেকে কক্সবাজারের পথে রওয়ানা হন। 

কক্সবাজারে যাওয়ার আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন,  পুলিশের
মহাপরিদর্শক আমাদের আশ্বস্ত করেছেন যে, তারা চেয়ারপারসনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে এবং পথিমধ্যে সব ধরনের সহযোগিতা করবে।  একই সঙ্গে সরকারও সবধরনের সহযোগিতা করবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন। 

ফখরুল বলেন,  দেশের জনপ্রিয় নেত্রী খালেদা জিয়া বিদেশ থেকে এসে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে, রোহিঙ্গাদের দেখতে যাবেন ও তাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করবেন।  সেই লক্ষে তিনি আজ সফর করছেন।  তার এই সিদ্ধান্ত নেতাকর্মীদের মধ্যে আশার সৃষ্টি করেছেন। 

চেয়ারপারসনকে শুভেচ্ছা জানাতে দলের নেতাকর্মীরা সুশৃঙ্খলভাবে রাস্তার দুপাশে দাঁড়িয়ে থাকবে।  এই ব্যপারে দলের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট জেলার নেতাকর্মীদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।  এ সময় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামছুজ্জামান দুদু, বরকতুল্লাহ বুলুসহ দলের সিনিয়র নেতারা চেয়ারপারসনের সঙ্গে সফরে যোগ দেন। 

মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দেখতে ও তাদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করতে কক্সবাজার যাচ্ছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। 

শনিবার সকাল ১০টায় গুলশানের বাসবভন থেকে সড়ক পথে কক্সবাজারের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন।  তার গাড়ি বহরে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ সিনিয়র নেতৃবৃন্দ রয়েছেন।  বিএনপির স্থায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য মির্জা আব্বাস, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, গয়েশ্বর চন্দ্র রায় আগেই কক্সবাজার পৌঁছেছেন। 

সফরকালে বিএনপি চেয়ারপারসন ফেনী ও চট্টগ্রামে যাত্রাবিরতি দেবেন।  ত্রাণ বিতরণ শেষে মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) একইভাবে মাঝপথে যাত্রাবিরতি দিয়ে ঢাকা ফিরবেন তিনি। 

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য তার এই সফর গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন অনেকে।  দীর্ঘ দুই বছর পর ঢাকার বাইরে কোনো কর্মসূচিতে যাচ্ছেন খালেদা জিয়া।  আর এই সফরকে ঘিরে ব্যাপক শো-ডাউনের প্রস্তুতি নিয়েছে দলের বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।   

সফরের প্রস্তুতি সম্পর্কে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাহবুবে ইলাহী শামীম  জানান, চেয়ারপারসনের আগমন উপলক্ষে দলের নেতাকর্মীরা উজ্জ্বীবিত।  এমনকি সাধারণ মানুষজনও উজ্জ্বীবিত।  তাছাড়া, ম্যাডাম যেখানে যান সেখানেই তো জনতার ঢল নামে।  আমাদের এখানেও তার ব্যতিক্রম হবে না।