২৪, নভেম্বর, ২০১৭, শুক্রবার | | ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ইয়াবা ব্যবসার অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি ছাত্রলীগের

১৩ নভেম্বর ২০১৭, ০৩:৪১

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখা ছাত্রলীগের ১১ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ইয়াবা ব্যবসা চক্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন রাবি শাখা ছাত্রলীগ।  সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়ায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করে সংগঠনটি। 

সম্প্রতি রাবির শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীসহ ৩৪ জন ইয়াবা ব্যবসা চক্রে জড়িত বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের মাদক অধিশাখা। 
প্রতিবেদনটি প্রধানমন্ত্রীর দফতর হয়ে ৭ নভেম্বর রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনারের (আরএমপি) হাতে পৌঁছেছে বলে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়।  তবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ওই ধরনের কোনো গোপন প্রতিবেদন পাননি বলে জানান রাজশাহী মহানগরের পুলিশ কমিশনারের মুখপাত্র ইফতেখার আলম। 

সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী ওই গোপন প্রতিবেদনে রাবির ছয় শিক্ষক, আট কর্মকর্তা-কর্মচারী, ১১ ছাত্রলীগ নেতা, তিন সাবেক ছাত্রদল নেতা ও ছয় সাধারণ শিক্ষার্থীর নাম উল্লেখ রয়েছে।  এছাড়া ওই তালিকায় রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) ১০ শনাক্ত করা হয়েছে।  এর মধ্যে এক শিক্ষক, দুই ছাত্রী ও সাত কর্মকর্তা-কর্মচারীর নামও রয়েছে।  সেইসঙ্গে গণমাধ্যমের সংবাদে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পাবিপ্রবি) চার কর্মকর্তার নামও ইয়াবা চক্রের তালিকায় উঠে এসেছে।  তবে এই গোপন প্রতিবেদনের সত্যতা নিয়ে নানারকম প্রশ্ন উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ছাত্রসংগঠনের মধ্যে। 

সংবাদ সম্মেলনে রাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ৯ নভেম্বর কিছু কিছু ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়া স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়য়ের বরাত দিয়ে রাবি ছাত্রলীগের ১১ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ইয়াবা ব্যবসা চক্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার যে অভিযোগ এনেছে তা সম্পূর্ণরুপে ভিত্তিহীন।  আমরা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ রাবি শাখা এ ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাশ করছি।  সেইসঙ্গে আমরা লক্ষ্য করেছি, কিছু শিক্ষককেও এর মধ্যে জড়ানো হয়েছে।  আমরা মনে করি, একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও ছাত্র এরকম হীন ও ঘৃণ্য কাজের সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে না। 

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে রাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই প্রতিবেদন যদি ঠিক থাকে, তাহলে ওই প্রতিবেদন তৈরির পেছনে কার হাত রয়েছে তা খতিয়ে দেখতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও রাবি উপাচার্যের প্রতি অনুরোধ জানান।  সরকারকে বিব্রত করতেই ওই ধরনের প্রতিবেদন করা হয়েছে।  এটি একটি সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বলে মনে করছি। 

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই প্রতিবেদন যদি সত্য হয়েও থাকে তাহলে অভিযুক্ত নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে জানান ছাত্রলীগের এ নেতা। 

সংবাদ সম্মেলনে রাবি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এহসান মাহফুজ, সাদ্দাম হোসেন, মাহফুজ আল আমিন, মিজানুর রহমান সিনহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান মিশু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। #