১৯, নভেম্বর, ২০১৭, রোববার | | ২৯ সফর ১৪৩৯

তারপরেও হাথুরুকে দেওয়া হবে বিদায়ী গণসংবর্ধনা!

১৫ নভেম্বর ২০১৭, ১০:১৭

দীর্ঘ ছুটি শেষে ঢাকায় আসছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের কোচ চণ্ডিকা হাথুরসিংহে।  ইতিমধ্যে তিনি পদত্যাগের ঘোষণা দিয়ে রেখেছে।  বাংলাদেশের ক্রিকেটের সাফল্যের পিছনে তার অবদান অনস্বীকার্য।  তার অবদান ভুলবার নয়।  বাঙ্গালী অকৃতজ্ঞ নয়।  তিনি চলে যেতেই পারেন।  পদত্যাগ করতেই পারেন এটা তার একান্ত ব্যক্তিগত ব্যাপার।  যাবার আগে হয়ত বিবিসি তাকে অনুরোধ করবেন থাকার জন্য।  এরপর যদি তিনি চলেই যান তাহলে তাকে বিদায় সংবর্ধনা দেওয়া হবে বলে জানাগেছে। 

বাংলাদেশ
ক্রিকেট ইতিহাসের সফলতম কোচ তিনি।  ২০১৪ সালের মাঝামাঝিতে দায়িত্ব নেওয়ার পর বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনাল, ভারত, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সহ টানা ৬টি ওয়ানডে সিরিজ জয়, ২০১৬ সালের এশিয়া কাপের ফাইনাল, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট জয়ের মতো অভূতপূর্ব সাফল্য দেখায় বাংলাদেশ।  হাথুরুর সময়ে দল যেমন বড় দলের মর্যাদা পায়, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও তেমনি বিশ্বের অন্যতম ধনী বোর্ডে পরিণত হয়। 

বিসিবির পক্ষ থেকে শেষবার অনুরোধ করা হবে চণ্ডিকা হাথুরসিংহেকে।  তাতেও রাজি না হলে আরেকটা প্রস্তাব ভেবে রেখেছে বিসিবি।  শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজটা পর্যন্ত অন্তত দলের সঙ্গে থাকার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হবে তাকে।  পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে ডিসেম্বরের শেষ দিকে ঢাকায় আসবে শ্রীলঙ্কা দল। 

বিশেষ এ প্রস্তাবে রাজি না হলেও শ্রীলঙ্কান এ কোচের সঙ্গে উষ্ণ ব্যবহারই করবে বিসিবি।  ছোট্ট পরিসরে তাকে দেওয়া হতে পারে সংবর্ধনাও। 

বিসিবির একটি সূত্র থেকে জানা গেছে সাফল্যমণ্ডিত কোচের প্রতি কৃতজ্ঞতা, ভদ্রতা ও পেশাদারির দায়বদ্ধতা থেকেই বোর্ডের এমন চিন্তাভাবনা।  বাংলাদেশ ক্রিকেটে যে তার বিরাট অবদান, তা ভুলে যেতে চায় না বিসিবি। 

গত মাসে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের মাঝপথে হুট করে পদত্যাগ করে বসেন হাথুরুসিংহে। অথচ ২০১৯ সাল পর্যন্ত তার সঙ্গে বিসিবির চুক্তি।  খেলোয়াড়দের সঙ্গে খারাপ সম্পর্ক ও শ্রীলঙ্কান বোর্ড থেকে পাওয়া প্রস্তাবই তাকে পদত্যাগে ইন্ধন যুগিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। 

হাথুরুর হঠাৎ পদত্যাগে অনেকটাই বেকায়দায় বিসিবি।  ভালো মানের কোচ খুঁজে পাওয়া এমনিতে কঠিন এবং সময় সাপেক্ষ ব্যাপার।  সামনেই আবার শ্রীলঙ্কা সিরিজ।  এ সিরিজ পর্যন্ত হাথুরুকে পাওয়া গেলে কিছুটা নির্ভার থাকবে বিসিবি।  আর এ সময়ে নতুন কোনও কোচের দিকে অগ্রসর হবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। 

বিসিবির সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বললেন, ‘উনি আসতে চেয়েছেন।  আগে আসুক।  আমরা উনার ঢাকায় ফেরার অপেক্ষায় আছি।  হাথরুসিংহে পর্ব আগে শেষ হোক।  এরপরই আমরা নতুন কোচের দিকে অগ্রসর হব। ’