১৮, ডিসেম্বর, ২০১৭, সোমবার | | ২৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

গাজীপুরে বিকল ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে ট্রেনের চালক নিহত

২৪ নভেম্বর ২০১৭, ১০:৫০

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার বক্তারপুর এলাকায় বিদ্যুতের খুঁটিবাহী বিকল ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে সহকারী ট্রেনচালক নুর আলম শরীফ নিহত হয়েছেন।  আহত হয়েছেন ট্রেনের চালকসহ আরও অন্তত ১৫ জন।  নিহত  চালক নূর আলম ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার শশা গ্রামের মমিন শরীফের ছেলে। 

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত পৌনে ২টার দিকে ওই এলাকায় ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী  রেললাইনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশন পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) এসএম রকিবুল
হক জানান, ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী রেললাইনের বক্তারপুর এলাকায় একটি অবৈধ রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় একটি ট্রাকের ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যায়।  এ সময় লালমনিরহাটগামী লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনটি ট্রাকের কাছাকাছি পৌঁছালে চালক ও হেলপার ট্রাক থেকে নেমে পালিয়ে যায়।  ট্রেনটি ট্রাকের ওপর আছড়ে পড়লে ঘটনাস্থলেই ট্রেনের সহকারী চালক শরীফ মারা যান। 
 
ট্রেনের ধাক্কায় ট্রেন লাইনের পাশে ছিটকে পড়া ট্রাকটি দুমড়ে মুচড়ে গেছে।  তবে ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়নি।  ট্রেনের কোনো যাত্রী আহত হননি।  রাতে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকলেও সকাল ৭টা থেকে ওই লাইনে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। 

জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশনের মাস্টার মো. শাহজাহান মিয়া জানান, বৃহস্পতিবার রাত ২টায় উপজেলার বক্তারপুর রেলক্রসিংয়ে উত্তরবঙ্গগামী লালমনি এক্সপ্রেস এই দুর্ঘটনায় পড়ে।  দুর্ঘটনার পর থেকে সকাল পৌনে ৮টা পর্য্ন্ত ঢাকার সঙ্গে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকে বলে জানান রেল কর্মকর্তা শাহজাহান মিয়া। 

কালিয়াকৈর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের গুদাম পরিদর্শক ইব্রাহিম চৌধুরী বলেন, রেলক্রসিংয়ে রয়েল গ্রুপের একটি ট্রাক বিকল হয়ে দাঁড়িয়ে ছিল।  এ সময়  ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ট্রেনটি এসে ট্রাককে ধাক্কা দিলে ট্রেনের সহকারী চালক নূর আলম ঘটনাস্থলেই মারা যান। 

জয়দেবপুর রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মো. রাকিবুল ইসলাম বলেন, শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে দুর্ঘটনায় পড়া ট্রেনটি উদ্ধার করার পর আবার ঢাকার সঙ্গে উত্তর-পশ্চিমের রেল যোগাযোগ শুরু হয়।