১৪, ডিসেম্বর, ২০১৭, বৃহস্পতিবার | | ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

কাহালুতে স্কুল মাঠের মরা গাছ ভেঙ্গে যেকোন সময় বড় ধরনের দূর্ঘনায় শিকার হতে পারেন শিক্ষার্থীরা

০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৪:৩৩

মোঃ ফাহিম আহম্মেদ রিয়াদ (কাহালু-বগুড়া)ঃ বগুড়ার কাহালু উপজেলার পাইকড় ইউনিয়নের খিয়ার ভূগোইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অবস্থিত বিশাল মরা আমগাছটি যে কোন সময় ভেঙ্গে বড় ধরনের দূর্ঘনার শিকার হতে পারেন শিক্ষার্থীরা।  গাছটির ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য কাহালু উপজেলা নির্বাহি অফিসার বরাবরে লিখিত আবেদন দিয়েছেন অত্র বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি, শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবক ও এলাকাবাসী।  লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পরও কোন উপকার না হওয়ায় বিদ্যালয়ের শিক্ষক/শিক্ষিকা
ও অভিভাবকবৃন্দ চরম হতাশাগ্রস্থ।  এ বিষয়ে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ নজর দিবেন কি? সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয় মাঠের মধ্যে অবস্থিত বিশাল পুরাতন মরা আমগাছের নিচে ছাত্র-ছাত্রীরা ঝুকিপূর্ন ভাবে খেলাধুলা করছেন।  এ সময় কয়েকজন ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবকের সাথে কথা বলা হলে তারা জানান, অনেক দিন হলে বিদ্যালয়ের আমগাছটি মরে আছে কিন্তু বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ গাছটি কাটার বিষয়ে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না।  তারা আরও বলেন বাচ্চাদের স্কুলে পাঠিয়ে আমরা দুঃচিন্তায় থাকি।  বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলাউদ্দিন জানান,“প্রায় ৭/৮ মাস পূর্বে আমগাছটি মরে গেছে।  সামান্য বাতাসে গাছের ডালপালা ভেঙ্গে পড়ে, গাছের নিচে ছাত্র-ছাত্রীরা খেলাধূলা করে যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দূঘর্টনা। ” তিনি আরও বলেন মরাগাছ কর্তনের জন্য উপজেলা নির্বাহি অফিসার বরাবরে লিখিত আবেদন করা হয়েছে।  এ ব্যাপারে কাহালু উপজেলা নির্বাহি অফিসার মোঃ আরাফাত রহমান এর সাথে বলা হলে তিনি জানান, “বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি ও শিক্ষকের সাথে আলোচনা করে মরাগাছ কর্তনের বিয়য়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ” তবে এলাকাবাসী ও অভিভাবকগণ বলছেন যে, অতিশিঘ্রই কোন ব্যবস্থা না  নিলে যদি কোন দূর্ঘটনা ঘটে তাহলে সমস্ত দায়ভার প্রশাসনকে নিবে হবে ।