১৭, জানুয়ারী, ২০১৮, বুধবার | | ২৯ রবিউস সানি ১৪৩৯

পোল্ট্রি শিল্পে অশনি সংকেত, কেজি দরে ডিম বিক্রি!

২৩ ডিসেম্বর ২০১৭, ১২:৩২

বাংলাদেশে পোল্ট্রি শিল্প বিকাশ লাভের পর মাংসের পুষ্টি চাহিদার ঘাটতি পূরণ হচ্ছে।  ফলে দরদামেও মোটামোটি সহজলভ্য।  কিন্তু অশনি সংকেত হলো সাম্রতিক সময়ে মুরগীর বাজার দর কমে যাওযায় ডিমের দরও পড়ে গেছে।  ফলে এখন কেজি দর হিসেবেই বিক্রি হচ্ছে ডিম।  ৪ টা এক হালি সেই দিন কি তাহলে এবার ফুরিয়ে যাবে।  ডিমের ক্ষেত্রে এরকমই ঘটনা ঘটতে যাচেছ।  এই প্রথমবারের মত পাবনার ঈশ্বরদীতে এবার কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে ডিম। 

পাবনা জেলার ঈশ্বরদীর বিভিন্ন এলাকার ডিমের
আড়ত ও পোল্ট্রি খামারে খোঁজ নিতে গেলে আড়তদার ও পোল্ট্রি খামারিরা জানান, ডিমের দাম অস্বাভাবিক ভাবে কমে যাওয়ায় তারা অনেকটা বাধ্য হয়ে হালিতে বিক্রি না করে দাড়ি পাল্লায় ওজন করে কেজি দরে বিক্রি করছেন। 

ঈশ্বরদীর মাড়মি এলাকার পোল্ট্রি খামারি প্রাণ নামের একটি প্রতিষ্ঠান প্রতিদিন এই এলাকার ডিম আড়তদারদের কাছ থেকে কেজি দরে ডিম কিনে ট্রাক ভর্তি করে নিয়ে যাচ্ছে।  টেবুনিয়ার ডিম আড়তদার আশরাফ আলী জানান, ডিমের দাম কমে যাওয়ায় তারা এখন কেজি দরে বিক্রি করছেন। 

দাশুড়িয়া এলাকার বঙ্গবন্ধু পদকপ্রাপ্ত পোল্ট্রি খামারি জানান, ডিমের দাম কমে যাওয়ায় এই এলাকার পোল্ট্রি শিল্পে ধ্বস নেমেছে।  খামারে খামারে পোল্ট্রি ব্যবসায়ীরা প্রতিদিন লোকসান গুণছেন।  অনেকে লোকসান গুণতে গুণতে পোল্ট্রি ব্যবসা পরিবর্তন করার চিন্তা করছেন বলে জানান খামারিরা। 

ব্যবসায়ীরা জানান, প্রতি কেজিতে ১৪-১৫ পিস ডিম হয়।  এক কেজি ডিমের দাম ৭০ টাকা।  এ হিসেবে এখন ঈশ্বরদীতে প্রতিটি ডিম বিক্রি হচ্ছে ৪ টাকা ৭০ পয়সা দরে।