১৭, জানুয়ারী, ২০১৮, বুধবার | | ২৯ রবিউস সানি ১৪৩৯

শিক্ষক থেকে মন্ত্রী

০১ জানুয়ারী ২০১৮, ১১:১৬

স্কুলশিক্ষক থেকে রাজনীতিবিদ।  ৩৯ বছরের শিক্ষকতা শেষ করে রাজনীতিতে আসা নারায়ণ চন্দ্র চন্দ সরকারের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।  এবার তিনি পূর্ণমন্ত্রী হিসেবে পদোন্নতি পেতে পারেন।  সোমবার (১ জানুয়ারি) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে যে, মঙ্গলবার তাকে বঙ্গভবনে যেতে হবে।  সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, বঙ্গভবনে হয়তো পূর্ণমন্ত্রী হিসেবেই শপথ নেবেন এই প্রতিমন্ত্রী। 

খুলনা-৫ (ডুমুরিয়া- ফুলতলা) আসনের সংসদ সদস্য নারায়ণ
চন্দ্র চন্দ ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি সরকারের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন।  মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী ছায়েদুল হকের মৃত্যুর পর চন্দ পূর্ণমন্ত্রীর দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন, সোমবার দুপুরের পর এ খবরটি ছড়িয়ে পড়ে।  এদিন সন্ধ্যায় নারায়ণ চন্দ্র চন্দ একান্তে কথা বলেন।  এসময় তাকে বেশ উচ্ছ্বসিত মনে হয়েছে। 

বঙ্গভবনে আমন্ত্রণ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি প্রথমেই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বিধাতার প্রতি।  কৃতজ্ঞতা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও এলাকার ভোটারদের প্রতি।  তিনি বলেন, ‘মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব শফিউল আলম ফোনে আমাকে জানিয়েছেন যে, কাল মঙ্গলবার (২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় যেন আমি বঙ্গভবনে উপস্থিত থাকি। ’
এক সময়ের মানুষ গড়ার কারিগর এখন দেশগড়ার কারিগর হিসেবে পরিচিত নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বলেন, ‘আজ আমার এই অবস্থানের জন্য এলাকার জনসাধারণের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।  তারা আমাকে একজন শিক্ষক থেকে মন্ত্রী বানিয়েছেন।  আমি ৩৯ বছর শিক্ষকতা শেষে প্রধান শিক্ষকের পদ থেকে পদত্যাগ করে রাজনীতিতে এসেছি।  সত্যিই যদি আমি কাল পূর্ণমন্ত্রী হই,তাহলে তা হবে আমার রাজনৈতিক জীবনে পাওয়া সবচেয়ে বড় উপহার। ’ তিনি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমার ওপর আস্থা ও বিশ্বাস রেখে যে দায়িত্ব দিয়েছেন, তা পালন করার চেষ্টা করেছি।  আগামীতেও তা করবো। ’