১৭, জানুয়ারী, ২০১৮, বুধবার | | ২৯ রবিউস সানি ১৪৩৯

শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীর গুরুতর অভিযোগঃ মামলা দায়ের

০২ জানুয়ারী ২০১৮, ০৩:৪৮

চাকরি দেওয়ার কথা বলে এক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ১৫ লাখ টাকা ঘুষ নিয়ে আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রুহুল আমিন নামের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। 

আজ মঙ্গলবার কুষ্টিয়ার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে শিক্ষক রহুল আমিনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন প্রতারণার শিকার বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী শরিফুল ইসলাম।  তিনি মামলায় উল্লেখ করেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় সম্মানিত শিক্ষক
রুহুল আমিনের সঙ্গে তাঁর ভালো সম্পর্ক গড়ে ওঠে।  স্নাতকোত্তরে প্রথম বিভাগ অর্জন করায় রুহুল আমিন তাঁকে বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রভাষক পদে চাকরি নিয়ে দেওয়ার কথা বলে ১৫ লাখ টাকা দাবি করেন। গত বছরের ১ জুন তিনি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেই রুহুল আমিনকে ১৫ লাখ টাকা দেন।  কিন্তু চাকরি দিতে ব্যর্থ হন ওই শিক্ষক।  বিষয়টি জানাজানি হলে গত বছরের ১২ অক্টোবর অগ্রণী ব্যাংক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার অনুকূলে (হিসাব নং ১০৭১৫) ১৫ লাখ টাকার একটি চেক দেন রুহুল আমিন।  ৩১ অক্টোবর ব্যাংকে ওই চেক নিয়ে গেলে ওই অ্যাকাউন্টে কোনো অর্থ না থাকায় চেকটি ডিসঅনার হয়। 

এ ঘটনায় গত ২৬ নভেম্বর শিক্ষক রুহুল আমিনকে আইনি নোটিশ পাঠান শরিফুল ইসলাম।  এরপরও টাকা পরিশোধ না করায় আজ আদালতে মামলা করেন তিনি।  আদালত রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন।  তবে মামলার বিষয়ে ঐ শিক্ষক রুহুল আমিন বলেন, "শরিফুল নামের যে ছাত্র অভিযোগ করছেন, তাকে চিনি না।  উদ্দেশ্যমূলক ভাবে আমাকে হেয় করার জন্য তিনি অন্যের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে এসব কাজ করছেন।  যে ব্যাংক হিসাবে চেকের কথা বলা হচ্ছে, সেটি আমার না।  আমি তাকে কোনো চেক দিইনি। "