১৬, জানুয়ারী, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ২৮ রবিউস সানি ১৪৩৯

বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিচ্ছেন না মাওলানা সাদ: ডিএমপি

১১ জানুয়ারী ২০১৮, ১১:৪৭

বিশ্ব ইজতেমা সুশৃঙ্খল ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হওয়ায় প্রত্যাশায় তাবলিগ জামাতের দিল্লীর আমীর মাওলানা সাদ কান্ধলভী ইজতেমায় অংশ নিচ্ছেন না বলে জানিয়েছেন ডিএমপি। 

বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিতে বাংলাদেশে আসা দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজের মুরব্বি মাওলানা সা’দ কান্ধলভি বর্তমানে রাজধানীর কাকরাইল মসজিদে অবস্থান করছেন।  মাওলানা মোহাম্মদ সাদ কান্ধলভি বিশ্ব ইজতেমায় যাবেন না বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)  যুগ্ম কমিশনার কৃষ্ণপদ রায়। 

১১
জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ডিএমপি কমিশনানের বরাত দিয়ে ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার  কাকরাইল মসজিদের সামনে উপস্থিত সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন। 

তিনি জানান, ইজতেমা ইজতেমার মতো চলবে, মাওলানা সাদ কাকরাইলে মসজিদেই থাকবেন।  ইজতেমা শেষে তিনি ফিরে যাবেন।  সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে মাওলানা সাদ ইজতেমা ময়দানে যাবেন না। 

আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এখন পর্যন্ত সরকারের যে সিদ্ধান্ত, তাতে দিল্লির মাওলানা মোহাম্মদ সাদ টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমায় যাচ্ছেন না।  তাঁকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দিয়ে রাজধানীর কাকরাইল মসজিদে রাখা হয়েছে। ’

এ ছাড়া কাকরাইলে  নিরাপত্তা সম্পর্কে তিনি জানান, জনগণের যাতে কোনো ভোগান্তি যেন না হয়, কোনো প্রকার বিশৃঙ্খলা যেন না হয় এই কারণে কাকরাইলে পুলিশের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। 

গতকাল বুধবার মাওলানা সাদ কান্ধলভীরের এ দেশে আসার প্রতিবাদে বিমানবন্দর এলাকায় বিক্ষোভ চলে।  তাবলিগ জামাতের একাংশ এই বিক্ষোভে যোগ দেয়।  এতে বিমানবন্দর থেকে টঙ্গী ব্রিজ পর্যন্ত ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। 

ওই দিন বেলা একটার দিকে থাই এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসেন মাওলানা সাদ কান্ধলভী।  তবে বিক্ষোভের কারণে আসার পর তিনি বিমানবন্দর থেকে বের হতে পারেননি। 

ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় ডিএমপির কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার বরাত দিয়ে এ তথ্য জানান। 

তাবলিগ জামাতের আয়োজনে প্রতিবছর উপমহাদেশে মুসলিমদের বৃহৎ জমায়েত বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়।  তাবলিগের লোকজন বরাবরই শান্তি ও সম্প্রীতির বাণী প্রচার করে আসছেন।  তবে সম্প্রতি বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাবলিগের দ্বন্দ্ব প্রকাশ্য হয়েছে।