১৬, জানুয়ারী, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ২৮ রবিউস সানি ১৪৩৯

অবশেষ দিল্লিই ফেরত যেতে হচ্ছে মাওলানা সাদকে

১১ জানুয়ারী ২০১৮, ০৬:২৬

বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দিতে এসে আন্দোলনের মুখে তাবলিগ জামাতের নিজামউদ্দিন মারকাজের মুরব্বি মাওলানা মোহাম্মদ সাদ কান্ধলভিকে।  বিতর্কিত মনন্ত্য করায় তার বিরোদ্ধে আন্দোলন মুসল্লিরা। ফলে আন্দোলনের মুখে বিশ্ব ইজতেমায় যোগ না দিয়ে দিল্লি ফেরত যাচ্ছেন মাওলানা মোহাম্মদ সাদ কান্ধলভি। 

বৃহস্পতিবার ১১ জানুয়ারি বিকেলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে তাবলিগ জামাতের বিবাদমান পক্ষকে নিয়ে  বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।  বিকেল ৩টা থেকে শুরু হওয়া এ বৈঠক চলে সোয়া
৫টা পর্যন্ত।   

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল ছাড়াও বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, তাবলিগের শুরার সদস্য ও আলেমরা উপস্থিত ছিলেন। 

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে তাবলিগ জামাতের বিবাদমান দু’পক্ষকে নিয়ে বৈঠকের পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানিয়েছেন, টঙ্গির তুরাগ তীরে এবারের বিশ্ব ইজতেমায় মাওলানা সা’দ অংশ নিবেন না।  তিনি বলেন, ‘মাওলানা সা’দ ইজতেমায় অংশ না নিলেও বাংলাদেশে যে ক’দিন থাকতে চান, কাকরাইল মসজিদেই থাকতে পারবেন।  তিনি যখন বাংলাদেশ ত্যাগ করতে চান, তখনই যেতে পারবেন।  তবে তিনি টঙ্গিতে যাবেন না। ’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা তাবলিগ জামাতে মাওলানা সা’দকে নিয়ে সৃষ্ট সমস্যা সমাধানে দু’পক্ষের কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে বসে দীর্ঘ সময় কথা বলেছি।  তারা আমাদের এ সিদ্ধান্তের প্রতি একমত হয়েছেন। ’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এবার ইজতেমায় আখেরি মোনাজাত কে পরিচালনা করবেন, তা তাবলিগ জামাতের নেতারাই ঠিক করবেন।  এটা একান্তই তাদের নিজস্ব বিষয়। ’

আসাদুজ্জামান খাঁন বলেন, ‘আজকের বৈঠকে দেশের খ্যাতনামা সব আলেম ছিলেন।  তাদের সঙ্গে বিস্তারিত কথা বলেই আমরা এ সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছি।  তাই আমরা মনে করি, প্রতিবারের মতই এবারো ইজতেমা শান্তিপূর্ণ হবে। ’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে সংকট দূর হওয়ায় তাবলিগ জামাতে বিগত কয়েক দিন ধরে চলা অস্বস্তির অবসান হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বৈঠকে অংশ নেওয়া উভয়পক্ষের নেতারা। 

এরআগে বিকেল সাড়ে তিনটা থেকে সন্ধ্যা পৌনে ছয়টা পর্যন্ত সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে মন্ত্রীর সঙ্গে এ বৈঠক হয়। 

বৈঠকে মাওলানা সা’দের বিরোধী পক্ষের প্রধান মাওলানা আশরাফের নেতৃত্বে ১৫/২০ জন, সা’দের পক্ষের তাবলিগ জামাতের শুরা সদস্য মাওলানা ওয়াসিব অংশ নেন।