১৭, জানুয়ারী, ২০১৮, বুধবার | | ২৯ রবিউস সানি ১৪৩৯

ভারতের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হতে চান বিদ্যা বালান

১১ জানুয়ারী ২০১৮, ০৯:২৪

বলিউডের এক গুণী অভিনেত্রীর নাম বিদ্যা বালান।  তিনি সব সময় নতুন চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করে।  তাই নতুন এক  চ্যালেঞ্জের সামনে বিদ্যা।  ২০০৫ সালে ‘পরিণীতা’ ছবির একটি চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে তার অভিষেক।  তবে ২০০৬ সালে ‘লাগে রাহো মুন্না ভাই’ ছবির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক পরিচিতি পান তিনি। 

তাই তো  ‘তুমহারি সুলু’ ছবিতে কমেডি রোলের পর এবার একেবারেই ভিন্নধর্মী একটি ছবিতে দেখা যাবে তাকে।  এবার স্বামী সিদ্ধার্থ রায় কাপুরের
ছবিতে অভিনয় করবেন তিনি।  যে ছবির বিষয়বস্তু হচ্ছে রাজনীতি। 

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, সাগরিক ঘোষের বই ‘ইন্দিরা: ইন্ডিয়াজ মোস্ট পাওয়ারফুল উইম্যান’-এর ওপর ভিত্তি করেই তৈরি হতে চলেছে নতুন ছবি।  সাগরিকার একটি ট্যুইটে তা আরো স্পষ্ট হয়ে যায়। 

সাগরিকা জানিয়েছেন, এরই মধ্যে মুভিরাইটস-এর জন্য চুক্তি হয়েছে।  অধীর অপেক্ষায় রয়েছেন বড় পর্দায় এটি দেখার জন্য। 

উল্লেখ্য এর আগে একটি ম্যাগাজিন লঞ্চের সময় ইন্দিরা গান্ধীর বায়োপিকে অভিনয়ের ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন বিদ্যা।  ভারতের সবচেয়ে ক্ষমতাশালী নারী প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর ভূমিকায় তিনি কতটা বিশ্বাসযোগ্য হয়ে ওঠেন সিনেপ্রেমীদের কাছে, এখন তারই অপেক্ষা। 

সবশেষ ‘তুমহারি সুলু’ ছবিতে দেখা যায় বিদ্যাকে।  এতে এক রেডিও জকির ভূমিকায় অভিনয় করেন বিদ্যা।  ছবির গল্পে দেখা যায়, সুলোচনা যে কোনো কম্পিটিশন জিতে নেয়।  পায় নিত্যনতুন উপহার।  কিন্তু জীবনের ভাঙাচোরা পথে কতটা জয়ী সে?

২০০৬ সালে ‘লাগে রাহো মুন্না ভাই’ ছবির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক পরিচিতি পাওয়া ছবিটি বক্স অফিসে সাফল্য অর্জন করে। 

এরপর থেকে হেই বেবি, কিসমত কানেকশন, ব্ল্যাক কমেডি ইশকিয়া, নো ওয়ান কিলড জেসিকা, দ্য ডার্টি পিকচার, কাহানি একে একে অনেক ছবিতেই দেখা গেছে তাকে।