১৬, জানুয়ারী, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ২৮ রবিউস সানি ১৪৩৯

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে পারাপারের অপেক্ষায় যানবাহনের দীর্ঘ লাইন

১২ জানুয়ারী ২০১৮, ০৯:৩৬

এম আজাদ হোসেন, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি: পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ব্যস্ততম এ নৌরুটে ঘন কুয়াশার কারণে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকা এখন নিত্য সময়ের ঘটনা,দেশের দক্ষিণাঞ্চলের প্রায় ২১টি জেলার সঙ্গে রাজধানীর সাথে যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুট।  মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার পাটুরিয়া ও রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় যানবাহনের লাইন দীর্ঘ হচ্ছে।  লাইনে অপেক্ষমান যানবাহনগুলোর মধ্যে যাত্রীবাহী বাস ও ছোট গাড়িগুলো দেড় থেকে
আড়াই ঘণ্টার অপেক্ষার পর সুযোগ পাচ্ছে  ফেরি পারাপারের।  কিন্তু জরুরি পণ্যবাহী ট্রাক ছাড়া অন্য সাধারণ ট্রাকগুলো পারাপার বন্ধ থাকার কারণে দীর্ঘ ভোগান্তিতে পড়েছে উভয় ফেরিঘাট এলাকায় অপেক্ষামান এসব ট্রাক চালকেরা।  পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় যাত্রীবাহী বাসের সংখ্যা কমে গেলে এরপর গুরুত্ব বা সিরিয়াল অনুযায়ী ওই ট্রাকগুলো পারাপার করা হবে বলেও মন্তব্য করেন ফেরিঘাট শাখা বাণিজ্য বিভাগের দায়িত্বরত কর্মকর্তারা। 

দৌলতদিয়া ফেরিঘাট শাখা বাণিজ্য বিভাগের ব্যবস্থাপক খোরশেদ আলম জানান,ঘন কুয়াশার কারণে দীর্ঘ সময় ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল।  এতে করে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় যানবাহনের দীর্ঘ লাইন জমে।  যাত্রী ভোগান্তির বিষয়টি বিবেচনা করে এসব যানবাহনের মধ্যে যাত্রীবাহী বাসগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পারাপার করা হচ্ছে। 
ঢাকামুখী পণ্যবাহী ট্রাকগুলোর মধ্যে জরুরি পণ্যবহন ছাড়া অন্যান্য ট্রাকগুলোকে গোয়ালন্দ টার্মিনালে আটকে রাখা হয়েছে।  এছাড়া অন্য ট্রাকগুলোকে যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে পারাপার করা হচ্ছে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে।  শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় বাস ও ট্রাক মিলে অপেক্ষামান যানবাহনের সংখ্যা প্রায় দুই শতাধিক বলেও মন্তব্য করেন তিনি। 

পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকার বাণিজ্য বিভাগের ব্যবস্থাপক সালাউদ্দিন হোসেন জানান, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ছোট বড় মিলে ১৬টি চলাচল করছে।  দীর্ঘ সময় ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার কারণে ঘাট এলাকায় যানবাহনের দীর্ঘ লাইন জমে আছে।  শুক্রবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকায় বাস ও ট্রাক মিলে প্রায় দেড় শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে।