২৪, ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, শনিবার | | ৮ জমাদিউস সানি ১৪৩৯

সাপের পেটে আস্ত মোরগ ভাইরাল ভিডিও

১৩ জানুয়ারী ২০১৮, ১১:৪৪

খুব নাদুস নুদুস দুটি মোরগ।  একেবারে ‘চ্যাম্পিয়ন’ মোরগ।  মোরগ লড়াইতে ওদের জুড়ি মেলা ছিল ভার।  সকালে ঘুম থেকে উঠে  মালিক দেখলেন, দু’জনেই গায়েব।  আর তার পরই তাঁর হাড় হিম হয়ে গেল যখন দেখলেন ছাদ থেকে ঝুলছে ১৫ ফুটের অতিকায় ময়াল সাপ, যার পেটটা ফুলে রয়েছে বেঢপ হয়ে।  আর মুখ থেকে বেরিয়ে রয়েছে এক মোরগের ঠ্যাং!
 
জানা গেছে, মোরগ দু’টির মালিকের নাম নাট ওয়াটনা।  বাড়ি থাইল্যান্ডের পাথুম থানিতে।  সাধের মোরগের এই পরিণতি অবশ্য সহজে মেনে নেননি তিনি। 

বেশ
কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে তিনি লেগে পড়েন উদ্ধারকার্যে।  কাজটা মোটেই সহজ নয়।  ততক্ষণে প্রায় গোটা মোরগটাকেই গিলে ফেলেছে অজগর সাপ।  ফলে রীতিমতো ঝক্কি পোহাতে হয় তার মুখ থেকে মোরগটিকে বের করে আনতে।  শেষ পর্যন্ত ধাতব রড দিয়ে খুঁচিয়ে কাজটা করতে সক্ষম হন নাট ওয়াটনা ও তাঁর সঙ্গীরা।  যদিও লাভের লাভ কিছু হয়নি।  মোরগটির ততক্ষণে পঞ্চত্বপ্রাপ্তি ঘটে গিয়েছে।  অন্য মোরগটিও বেঁচে নেই। 

হতাশ মোরগের মালিক জানিয়েছেন,  সকাল থেকে মোরগ দু’টোর সাড়াশব্দ পাইনি।  তার পরই বুঝতে পারি আসল ঘটনা।  ওই দুটি মোরগের সম্মিলিত দাম ৬৯০ ডলার! তবে শুধু দামের জন্য নয়, এমনিতেও তাদের বেজায় পছন্দ করতেন তিনি।  তবে ওই ময়ালটির উপরে রাগ করছেন না ওই ব্যক্তি।  তাঁর মতে, ওটা তো ময়ালটার স্বাভাবিক খাদ্য।  মোরগটিকে অবশ্য বাঁচানো যায়নি।   

অতিকায় মোরগকে হজম করতে ময়ালের লাগে ২ সপ্তাহ।  তবে শিকার ফসকে যাওয়ার পরে স্বাভাবিক ভাবেই ময়াল সেটাকে ভাল ভাবে নেয়নি।  তাকে তাই বিশ্রামের জন্য খানিক সময় দেওয়ার পরেই ছেড়ে আসা হয় কাছের জঙ্গলে।  আশা, সে নিশ্চয়ই তার শিকার খুঁজে পাবে জঙ্গলের ভিতরে। 

https://www.youtube.com/watch?time_continue=33&v=Vg5M03R2-eQ