১৭, জানুয়ারী, ২০১৮, বুধবার | | ২৯ রবিউস সানি ১৪৩৯

আরো একটি হার রিয়াল মাদ্রিদের

১৪ জানুয়ারী ২০১৮, ০৯:৩৯

একের পর এক ম্যাচে পয়েন্ট হারিয়ে শিরোপা তো আগেই বার্সার হাতে তুলে দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ।  এবার বাকি রয়েছে যে ইজ্জত টুকু, সেটাও হারাতে বসেছে মাদ্রিদের দলটি।  আজ সেই ইজ্জত হারানোর ম্যাচে ভিলারিয়ালের বিপক্ষে হেরেছে তারা।  নিজেদের মাঠেই ভিলারিয়ালের কাছে ১-০ গোলে হেরেছে জিদানের দল। 

সান্তিয়াগো বার্নাবুতে অনুষ্ঠিত ম্যাচের শুরু থেকেই দারুন আক্রমনাত্মক খেলেছে রিয়াল মাদ্রিদ।  একের পর এক আক্রমনে ব্যস্ত রেখেছে ভিলারিয়ালকে।  এমনই একটি আক্রমন থেকে
ম্যাচের ১২ মিনিটে গোলও করে রিয়াল মাদ্রিদ।  তবে রেফারি বাশি বাতিল করে গোলটিকে।  ম্যাচের ২০তম মিনিটে রিয়াল মাদ্রিদের আরেকটি প্রচেষ্টা থামিয়ে দেন অতিথি গোলরক্ষক।  মার্সেলোর দুরপাল্লার বুলেট গতির শট উড়ে গিয়ে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন তিনি। 

ম্যাচের ২১ মিনিটে প্রায় গোল পেয়েই গিয়েছিল রোনালদো।  তার দুর্দান্ত ফ্রিকিক ভিলারিয়াল গোলকিপারের হাতে লাগার পর বারপোষ্টে বাধা পেয়ে ফিরে আসে।  ম্যাচের ২৮তম মিনিটে রিয়ালের ডিবক্সের ভেতরে গিয়ে বলেই শট নিতে না পারলে হতাশ হয় ভিলারিয়া। 

পাল্টা আক্রমনে ম্যাচের ২৯ মিনিটে আবারো হতাশ হতে রোনালদোকে।  লুকা মড্রিচের ডিফেন্সচেড়া পাস রোনালদোকে খুজে পেলেও এক ডিফেন্ডার ও গোলকিপারের মাঝ দিয়ে নেয়া রোনালদোর শট বারপোষ্ট ঘেষে বেড় হয়ে গেল হতাশ হতে হয় রোনালদো ও রিয়াল মাদ্রিদকে।  বল বার পোস্ট ঘেষে বেড় হওয়ার সময় দৌড়ে গিয়েও বলের নাগাল না পাওয়ায় হতাম হতে হয় ইসকোকেও।  পরের মিনিটেই রোনালদোর আরেকটি শট বারপোষ্ট ঘেষে বেড় হয়ে যায়। 

ম্যাচের ৩৪ মিনিটে এবার রিয়াল মাদ্রিদকে হতাশ করে রেফারি।  টনি ক্রুসের ক্রস ডিবক্সের ভেতরে ভিলারিয়াল খেলোয়ারের হাতে লাগলেও এড়িয়ে যান রেফারি।  ম্যাচের ৪২ মিনিটে ডিবক্সের ডান প্রান্ত থেকে বেলের শট বারের বাইরে দিয়ে গেলে আরেকবার হতাশ হতে হয় রিয়ালকে। 

এরপর ম্যাচের ৪৫ মিনিটে আবারো হতাশ হতে রোনালদোকে।  এবার ডান প্রান্ত থেকে গ্যারেথ বেলের বাড়ানো বলে ছুটে গিযে পা লাগিয়েছিলেন বলে।  তবে সেটাও ঝাপিয়ে পড়ে থামিয়ে দেন স্বাগতিক গোলরক্ষক।  আক্রমনের বন্যা বইয়ে দিলেও প্রথমার্ধে গোলশুন্যই থাকে রিয়াল মাদ্রিদ। 
 
দ্বিতীয়ার্ধেও যথারীতি আক্রমনের ধারা বজায় রাখে রিয়াল।  ম্যাচের ৫১ মিনিটে বা দিক থেকে উড়ে আসা ক্রসে টনি ক্রুসে জোড়ালো শট থামিয়ে সে যাত্রায় ভিলারিয়ালের ত্রাতা গোলকিপার।  ৬২ মিনিটে রোনালদোর পাস থেকে মড্রিচের বক্সের বাইরে থেকে নিচু করে নেয়া শটও ঝাপিয়ে পড়ে থামিয়ে দিয়ে রিয়ালকে হতাশ করে অতিথি গোলরক্ষক। 

ম্যাচের ৮০ মিনিটে দারুন ভাবে বল নিয়ে ডি বক্সে গিয়ে লুকা মড্রিচকে পাস দেন ভাসকেজ।  বল পেয়ে জোড়ালো শট নেন মড্রিচ।  তবে তার শট বারের উপর দিয়ে গেলে হতাশ হতে হয় রিয়াল মাদ্রিদকে। 

৮৬ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার দারুন সুযোগ পায় ভিলারিয়াল।  ভিলারিয়াল তারকা উনাল পাল্টা আক্রমন থেকে একেবারে ফাকায় বল পেয়েছিলেন।  সামনে ছিল শুধুই নাভাস।  তবে নাভাসকে ফাকি দিতে পারেননি এই ভিলারিয়াল তারকা।  কিন্তু নাভাসও ঝাপিয়ে পড়ে সেই বল থামালেও সেটা আবার সামনের দিকে চলে আসে।  সেখানে আবার দৌড়ে আসা ভিলারিয়াল তারকা পাবলো মাটিতে পড়ে থাকা নাভাসকে কোন সুযোগ না দিয়ে তার উপর দিয়ে বল মেরে পাঠিয়ে দেন রিয়ালের জালে।  আর উল্লাসে মাতে ভিলারিয়াল। 

এই হারের ফলে ১৮ ম্যাচ শেষে রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট দাড়াল ৩২।  তালিকার ৪ নম্বরে আছে তারা।  ৩১ পয়েন্ট নিয়ে পাঁ নম্বরে ভিলারিয়াল।  শীর্ষে থাকার বার্সার সংগ্রহ  ৪৮ পয়েন্ট।