১৭, জানুয়ারী, ২০১৮, বুধবার | | ২৯ রবিউস সানি ১৪৩৯

বার্সা ইজ মোর দ্যান অ্যা ক্লাব

১৪ জানুয়ারী ২০১৮, ০৯:৪১

আলেক্স এবং সিলভিয়া দুই বন্ধু।  তারা একই বছর জন্ম গ্রহন করেছে।  তারা বার্সালোনার কাছে ছোট একটি শহরের একটি স্কুলে একই সাথে পড়াশোনা করেছে।  এরপর তারা যখন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয় সেটাও দুজনে একই সাথে একই বিশ্ববিদ্যালয়ে। 

আলেক্স এবং সিলভিয়ার আরো একটি মিল ছিল।  তারা দুজনেই ছিল বার্সালোনার কট্টর সমর্থক। 

বাইরে থেকে তাদের দেখতে এক মনে হত।  কিন্তু সত্যিই তারা ছিল ভিন্ন।  বিশেষ করে রাজনীতি সম্পর্কিত বিষয়ে দুইজনের মনোভাব ছিল দুই রকম।  সিলভিয়া
ছিল কাতালানদের স্বাধীনতার পক্ষে।  তার বাড়িতে বিশাল একটি পতাকা টাঙ্গানো ছিল যাতে এস্তেলাদা প্রতিক ছিল।  এটি কাতালুনিয়ার স্বাধীনতা আন্দোলনকে চিহ্নিত করত। 

২১ ডিসেম্বরের নির্বাচনে সিলভিয়া কাতালুনিয়া প্রদেশের ডানপন্থী সেকশন পার্টির পক্ষে ভোট দেয়।  এতে স্বাধিনতাবাদী দল গুলো জয় লাভ করে। 

বিপরীতে আলেক্স কাতালুনিয়া স্বাধীনতার পক্ষে নয়, বরং সামাজিক বিষয় গুলোর উপর তাদের প্রচারাভিযান সম্পর্কে সবাই অবহিত করতে পছন্দ করত। 

কিন্তু আলেক্সের একটা বৈশিষ্ট ছিল।  এটা তার মুখের কথাই।  আমি যখন নুক্যাম্পে যাই তখন আমি ফুটবল উপভোগ করি।  এটা আমার মতামত। যখন আমি স্টেডিয়ামেযাই তখন আমি রাজনীতি বাইরে রেখে যাই।  তার মতে বার্সা হল খেলার চেয়েও বড়। 

প্রাক্তন সভাপতি এটিকে খুব সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করেছেন।  তিনি বলেছেন, বার্সা ক্লাবের চেয়েও বেশি কিছু। 
 
এক্ষেত্রে সিলভিয়া কিছুটা ব্যতিক্রম।  তিনি স্টেডিয়ামে যেতেন হলুদ কাপড় পড়ে যা ছিল কারাগারে থাকা স্বাধীনতাকামী রাজনীতিবিদ ও কর্মীদের একটি রেফারেন্স।  তিনি প্রতিটি ম্যাচের ১৭ মিনিট ১৪ সেকেন্ডের সময় স্বাধীনতার পক্ষে চিৎকার করতেন। 

“বিখ্যাত কাতালান লেখক ম্যানুয়াল ভ্যাজাকিজ্ মন্টালবার্ন, বার্সাকে কাতালোনিয়ার নিরস্ত্র সৈন্য হিসেবে বর্ণনা করেছেন। ” আর সিলভিয়া বলেন, “আমি বিশ্বাস করি যে এই বাক্যটি (লেখকের) সত্যিই ভাল ক্লাবটিকে সংজ্ঞায়িত করে। ”

আলেক্স এবং সিলভিয়া একটি ক্লাবের দুটি দর্শনের উদাহরন মাত্র।  কিন্তু ভক্তদের জন্য এমন অনেক মুখ ও ব্যাখ্যা রয়েছে। 

ম্যানিফেষ্ট বুলুগ্রানা নামে তখন একটি সংগঠন ছিল।  সেটার সভাপতি ছিল মার্ক ডুচ।  এই সংগঠনটির কাজ ছিল সচ্ছ বার্সালোনা তৈরি করা। 

তখন মার্ক ডুচ বলেছিল, তুমি আমাকে জিজ্ঞাস করো বার্সা কি? আমি বলব, এটা আমার জন্য একটা শখ।  একটি অচল আবেগ।  একটি উদাহরন, একটি পরম লজ্জা এবং আরো আনেক কিছু। 

হাজার হাজার মানুষকে একত্রিত করার ক্ষমতা সম্পন্ন একটি প্রতিষ্ঠান হল বার্সা।  সেই কারণে আমরা দেশের সামাজিক ও মানব উন্নয়নে একটি সক্রিয় ভূমিকা রাখার দাবি জানাচ্ছি, বলেন ডুচ। 

সিলভিয়া বলেছিলেন, একটা পতাকার নিচে আমরা সবাই এক।  এটাই হল বার্সার শক্তি যা সবাই সংঘবদ্ধ করতে পারে। 

আর আলেক্স বলেছিলেন, দিন শেষে আমরা সবাই শান্ত এবং সুন্দর।  আমরা ভিন্ন মতাদর্শের রাজনীতিবিদ হতে পারি কিন্তু বার্সার জন্য ভালোবাসা সবই সমান।