১৭, জানুয়ারী, ২০১৮, বুধবার | | ২৯ রবিউস সানি ১৪৩৯

ত্রিদেশীয় সিরিজ যেন পুনর্মিলনী এক সিরিজ

১৪ জানুয়ারী ২০১৮, ০১:০১

১৫ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে ত্রিদেশীয় ক্রিকেট সিরিজ।  এতে টাইগাদের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়।  চণ্ডিকা হাথুরুসিংহে হঠাৎ বাংলাদেশ দলের কোচ থেকে পদত্যাগ করায় কোচ শুণ্য বাংলাদেশ দল। তাই টাইগারদের দায়িত্বে আছেন খালেদ মাহমুদ। 

এদিকে টাইগারদের বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিক এসেছেন বাংলাদেশে।  তবে তিনি এসেছেন নিজ দেশ জিম্বাবুয়ের হয়ে।  ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশ দল তাই দুই কোচকেই পাচ্ছে তবে নিজ দলের পক্ষে নয়।  সাবেক দুই কোচ এখন প্রতিপক্ষ দুই দলের
কোচের দায়িত্বে রয়েছে। 

ফলে ত্রিদেশীয় সিরিজটা যেন পুনর্মিলনী সিরিজে পরিনত হয়েছে।  তাইতো স্মরণী করে রাখতে এ সিরিজে বাংলাদেশে জয় ছাড়া কোন বিকল্প নাই।  ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতিও এমনটা মনে করেন। 

শনিবার বিকেলে মাঠে ঢুকে প্রথমে মুশফিককে পেয়েই জড়িয়ে ধরলেন হিথ স্ট্রিক।  এর পর একে একে মোস্তাফিজ, নাসিরের সঙ্গেও অনেকদিন পর দেখা হয়ে গেল তার।  বাংলাদেশ দলের ড্রেসিং রুমে ঢুকে খানিকক্ষণ আড্ডাও দিলেন।  বেরুতেই দেখা ট্রেনার মারিও ভিল্লাভারায়েন, চম্পাকা রামানায়েকের সঙ্গেও।  অনেকটা কি পুনর্মিলনীই হচ্ছে ত্রিদেশীয় সিরিজে?

হিথ স্ট্রিকের মতে, ‘বর্তমান সময়ে এরকম হয়েই থাকে।  চণ্ডিকা আর খালেদ সুজনের (খালেদ মাহমুদ) সঙ্গে আমার দারুণ সম্পর্ক।  আমার মনে হয় আমাদের সবার জন্যই ব্যাপারটা চ্যালেঞ্জের।  এই কন্ডিশনের সঙ্গে আমরা সবাই পরিচিত।  বিপিএলে শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের খেলোয়াড়রা খেলায় তাদেরও চেনা সব।  আসলে খুব বেশি কিছু গোপন নেই।  পরিকল্পনা ঠিকঠাক কাজে লাগানোই আসলে বিষয়। ’

এদিকে জিম্বাবুয়ে দলে ফিরেছে টেইলর, জার্ভিসরা তাই তারাও বেশ শক্তিশালী।  জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটে ঘুরে দাঁড়ানোর আওয়াজ পাওয়া যাচ্ছে। 

এবিষয়ে স্ট্রিকের মনে করেন, ‘এখনো অনেক দূর যাওয়া বাকি।  হ্যাঁ সামনে আগানোর মতো ক্রিকেটাররা আছে।  গেল বছর আমরা শ্রীলঙ্কার মাঠে ওদের হারিয়েছি। ’

উল্লেখ্য গত বছর শ্রীলঙ্কায় গিয়ে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে লঙ্কানদের হারিয়ে এসেছে জিম্বাবুয়ে।  তাই তারা বেশ উচ্ছসিত।  ফলে ত্রিদেশীয় সিরিজেও পিছিয়ে থাকতে চায় না তারা, ‘এটা আমাদের বিশ্বাস দিয়েছে।  যদিও গত কিছুদিন আমরা সেভাবে ওয়ানডে খেলিনি।  তবে এবার প্রস্তুতি নিয়েই এসেছ’ বললেন স্ট্রিক। 

১৫ জানুয়ারি থেকে শুরু টুর্নামেন্টে প্রতি দল একে অন্যের সঙ্গে দুবার করে খেলবে।  শীর্ষ দুই দল খেলবে ফাইনালে।  তাই মিলন মেলার এ সিরিজটি বেশ জমবে বলে মনে হচ্ছে।