২৩, ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, শুক্রবার | | ৭ জমাদিউস সানি ১৪৩৯

বিয়ের রাতে নববধূর সতীত্ব পরীক্ষা, যে ঘটনার জন্মদিল!

২৪ জানুয়ারী ২০১৮, ১১:৪৭

বিয়ের রাতেই কনের সতীত্ব পরীক্ষা করে দেখা হয়।  পুণের কঞ্জরভাট গোষ্ঠীতে এমন রীতিই প্রচলিত রয়েছে।  এই রীতির বিরোধিতা করতে গিয়েছিলেন সেই গোষ্ঠীরই তিন জন।  আর তাতেই বাকি সদস্যরা রেগে গিয়ে তিন জনকে বেধরক মারধর করেন।   

এই তিন জন প্রতিবাদী হোয়াটসঅ্যাপে ‘স্টপ দ্য ভি রিচুয়াল’ নামে একটি গ্রুপ চালাতেন।  এই গ্রুপের মূল উদ্দেশ্য হল মহিলাদের জন্য তৈরি এই রীতিকে সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করে দেওয়া।  এই গ্রুপের মাধ্যমেই তাঁরা মানুষকে সচেতন করতেন। 

অন্যদিকে
কঞ্জরভাট গোষ্ঠী বিয়ের রাতে কনের সতীত্ব পরীক্ষা ও পণ নেওয়ার মতো কিছু অপ্রগতিশীল কাজকর্ম চালিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।  এই নিয়েই রবিবার পঞ্চায়েত বসিয়েছিল এই গোষ্ঠী।  কিন্তু এই তিন সদস্য পঞ্চায়েত সভায় উপস্থিত না থেকে একটি বিয়ে বাড়িতে যান। 

এক দিকে পঞ্চায়েত সভায় অনুপস্থিতি আর অন্যদিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় মহিলাদের সতীত্ব পরীক্ষা করে দেখার বিরুদ্ধে মানুষকে সচেতন করা— এই দু’টি কারণে গোষ্ঠীর ৪০ জন সদস্য রবিবার রাতে ওই তিন সদস্যকে বেধরক মারেন। 

তিন জন এর পরে মহারাষ্ট্র অন্ধশ্রদ্ধা নির্মূলন সমিতির সাহায্য নিয়ে ওই গোষ্ঠীর ৪০ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।  সেই অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার সকালে ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  ভারতে এখনও যেসব কুসংস্কার বিশ্বাস করা হয় তার বিরুদ্ধেই মানুষকে সচেতন করে মহারাষ্ট্র অন্ধশ্রদ্ধা নির্মূলন সমিতি।