১৯, ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, সোমবার | | ৩ জমাদিউস সানি ১৪৩৯

নতুনদের মধ্যে যাদের সুযোগ দিতে বললেন তামিম!

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৮:০১

লঙ্কানদের বিপক্ষে আসন্ন দুই ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচের জন্য ১৫ সদস্যর দল ঘোষণা করেছে বিসিবি।  আর সেই দলে ফিরেছেন ওপেনার সৌম্য সরকার ও ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ম্যাচে আঙুলে চোট পাওয়া সাকিব আল হাসান।  আর তাই তার পরিবর্তে আর একজন বাঁহাতি স্পিনারকেই ডেকেছেন নির্বাচকরা।  শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি দলে সুযোগ পেয়েছেন নাজমুল ইসলাম অপু। 

এছাড়াও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঘোষিত টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে রয়েছে নতুন পাঁচ মুখ- আবু জায়েদ রাহী, আরিফুল
হক, মেহেদী হাসান, জাকির হাসান ও আফিফ হোসেন।  মূলত বিপিএলে ভালো পারফরম্যান্সের কারণেই দলে জায়গা পেয়েছেন তারা।  আর এই নতুন ছয় মুখের জন্য পর্যাপ্ত সুযোগ চান দলের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল খান।  এক দুই ম্যাচের পারফরম্যান্স দিয়ে বিচার করা উচিৎ নয় বলেই মনে করেন তিনি। 

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'আমার কাছে মনে হয় যে কোনো ক্রিকেটার লাগাতার দুই বা তিন বছর ঘরোয়াতে পারফর্ম করছে, জাতীয় দলে আসার পর তার একটা বা তিন-চারটা খারাপ ম্যাচ হতেই পারে।  তাকে ওই সময় সরিয়ে দেওয়াটা আমার মনে হয় না কোনো সমাধান।  যখনই তাকে নির্বাচন করা হয় ওর মধ্যে ওই সামর্থ্য আছে বলেই চিন্তা করা হয়।  ওকে যথেষ্ট সুযোগ দিতে হবে।  যখন একজন আসে, অন্তত সবার সন্তুষ্টির জন্য তাকে যথেষ্ট সুযোগ দেওয়া উচিত।  কারণ আমার মনে হয় এখানে একটা বড় গ্যাপ থাকে।  ওখানে খাপ খাইয়ে নেওয়ারও ব্যাপার আছে।  তারা যদি মনে করে বাংলাদেশের হয়ে ভালো করার ওর সামর্থ্য আছে, তাকে তাহলে যথেষ্ট সুযোগ দেওয়া উচিত। '

সুযোগ পেলে তা কাজে লাগাতে পারবে তারা।  বিশেষ করে মেহেদীকে নিয়ে তামিম বলেন, 'যদি না করতে পারে তাহলে ওকে সময় দিতে হবে।  কারণ ভালো খেলোয়াড় হলেই নিশ্চিত না যে সে প্রথম ম্যাচ বা প্রথম দুই তিন ম্যাচ ভালো খেলবে।  হয়তোবা ৪ বা ৫ নাম্বার ম্যাচ থেকেও ভালো খেলতে পারে।  আবার এমনও হতে পারে প্রথম ম্যাচ থেকেও ভাল খেলতে পারে।  আমি নিশ্চিত যারাই ওদের নির্বাচন করেছেন এটা ভেবেই করেছেন ওদের সে সামর্থ্য আছে আন্তর্জাতিক টি-টুয়েন্টিতে ভাল খেলার জন্য। '

তবে শুধু মেহেদী নয় বরং আরিফুল ও রাহীদের খেলাতেও মুগ্ধ তামিম।  তিনি বলেন, 'আমি দুই তিন জনের নাম বলি।  বিশেষ করে রাহী।  আমার কাছে মনে হয় সে এর দাবীদার।  কারণ গত দুই বছর ধরে বিপিএলে সেরা পারফর্মার বোলার ছিল সে।  তাই সে ডাক পেতেই পারে।  আরিফুল হকও গত দুই তিন বছর ধরে বিপিএলে সমানভাবে ভালো খেলে যাচ্ছে।  আমরা চাচ্ছিলাম ম্যাচ শেষ করে আসার জন্য একজন খেলোয়াড়, যে দরকারে বড় শটও করতে পারে। ।  তার সে সামর্থ্য আছে। '