‘আর এমন কিছু হলে অস্ট্রেলিয়াই পারলে বাংলাদেশের টেস্ট স্ট্যাটাস কেড়ে নিতো’

বল বিকৃতি (বল টেম্পারিং) হল বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম একটি জঘন্য ঘটনা। বলে অতিরিক্ত সুইং ও টার্ন পাওয়ার জন্য মাঠে ম্যাচ চলাকালীন বলের কোনো অংশে চুইংগাম বা অন্য যেকোন শক্ত জিনিস দিয়ে ঘষে বলের স্বাভাবিক উপরিভাগকে অমশ্রিন করে দেওয়ার নামই হল বিকৃতি (বল টেম্পারিং)।

এবার এই জঘন্য কাজে ফেঁসে গেলেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তৃতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনে এমন কাণ্ড করে বসেন অস্ট্রেলিয়ার তরুণ পেসার ক্যামেরন ব্যানক্রফট। তবে ব্যানক্রফট যে এমন কিছু করবে সেটা জানতেন অজি অধিনায়ক। আর তাইতো দিনশেষে এর দায় স্বীকার করেন তিনিও।

যার শাস্তি হিসেবে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে তাকে এবং তার সহকারী ডেভিড ওয়ার্নারকেও। সেই সঙ্গে এক টেস্টে নিষিদ্ধ হয়েছেন স্টিভেন স্মিথ। পাশাপাশি জরিমানা করা হয়েছে ম্যাচ ফির পুরোটাই। মাঠে টেম্পারিংয়ের চেষ্টা করেছিলেন যিনি, সেই ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে জরিমানা করা হয়েছে ম্যাচ ফির ৭৫ শতাংশ। পাশাপাশি দেওয়া হয়েছে তিনটি ডিমেরিট পয়েন্ট।

তবে এমনটি যদি বাংলাদেশ করতো তাহলে হয়তো আইসিসির কাছে বাংলাদেশের টেস্ট মর্যাদা কেড়ে নিতেই বলত অস্ট্রেলিয়া। আর এমনটিই মনে করেন জাতীয় দলের সাবেক বাঁহাতি স্পিনার এনামুল হক জুনিয়র।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ক্রিকেটের জন্য এটা খুবই বাজে দিন। আর এমন কিছুতে অস্ট্রেলিয়াই সবাইকে খোঁচায়। ওদেরতো নাক উঁচু। আমরা এমনিতেই টেস্ট ম্যাচ কম খেলি আর টেস্টে আমাদের এমন সাফল্যও নেই। আর এমন কিছু হলে ওরাই পারলে আমাদের টেস্ট স্ট্যাটাস কেড়ে নিতো। তবে আমাদের ছেলেরা এমন না। এমন প্রতারণা করে কেউ খেলে না। হারি ঠিক আছে কিন্তু অসৎ নই। আর যা কিছু করার করি আইনের মধ্যে থেকেই করি।’