‘একদিন তো মরেই যাবো’ এই ট্রল এর ইতিহাস আসলে কী?
The news is by your side.

‘একদিন তো মরেই যাবো’ এই ট্রল এর ইতিহাস আসলে কী?

কয়েকদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নতুন একটি ট্রেন্ড চোখে পড়ছে ‘একদিন তো মরেই যাবো’। বিষয়টি ইতোমধ্যে ফেসবুকে ভাইরাল। নেটিজেনরা খুবই উচ্ছ্বসিত। ফেসবুক ইউজারকারীরা ট্রল করার ক্ষেত্রেও ব্যবহার করছেন বাক্যটি। বিভিন্ন মানুষের ওয়ালেও দেখা যাচ্ছে ‘একদিন তো মরেই যাব’ শীর্ষক নানা ট্রল। এই মরে যাওয়া নিয়েই ফেসবুক এতো উল্লাসিত।

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে মৃত্যু নিয়ে কেন এই ট্রল? তাই বিষয়টি নিয়ে অনেকেই মজা নিলেও অনেকই বিরক্ত প্রকাশ করছেন। একজন অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট তো রীতিমতো এই বিষয়টির প্রতি তীক্ত বিরক্ত হয়ে নিজের ফেসবুক পেইজে লিখেছেন, ‘একদিন যেহেতু মরেই যাবা, বাঁইচা থাইকা কি লাভ! দয়াকরে তোমরা আইজকাই মইরা যাও, মইরা গিয়া আমাদের একটু শান্তি দাও।’

কিন্তু আপনি কী জানেন ‘একদিন তো মরেই যাবো’ ট্রলটির উৎপত্তি কোথা থেকে?

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ফেসবুকের ‘রূপকথার রাজকুমার’ নামের একটি আইডিতে সর্বপ্রথম এমনি একটি মজার ট্রল পাওয়া যায়। আর্জেন্টিনার ফুটবল খেলোয়াড লিওনেল মেসিকে কেন্দ্র করেই মূলত এই ট্রলটি বানানো হয়েছিলো।

ফিফার এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আর্জেন্টিনার বর্তমান টিম খুবই দূর্বল, এবং আর্জেন্টিনা এতো শক্তিশালী দলগুলোর সাথে লড়াই করে কাপ কিভাবে নেবে জিজ্ঞেস করলে উত্তরে লিওনেল মেসি বলেন, ‘এখন তো সময়টা ফুরিয়ে গেছে, কাপ নিয়ে কী লাভ, একদিন তো মরেই যাবো।’ মেসির এই কথাটিই আজ ট্রল হয়ে কয়েকদিন ধরে নেট দুনিয়ায় কাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে।

এবার এক নজরে দেখে আসি ‘একদিন তো মরেই যাবো বাক্যটা কিভাবে ট্রল করছেন নেটিজেনরা।

আম্মু আনিকার দাঁত এতো হলুদ আর এতো গন্ধ কেন? কারণ আনিকার দাঁত মেজে কী হবে একদিন তো মরেই যাবে! ছি: আনিকা এতো খাচ্চর!

দোস্ত কী করছ? জেনে কী করবি? একদিন তো মরেই যাবো। আমি বাইরে… আছি তুইও আয়। এসে কী করবো, একদিন তো মরেই যাবো। আমার সাথে দুইটি মেয়ে বান্ধবীও আছে। কই আছস তোরা? বলে তো লাভ নেই, একদিন তো মরেই যাবো।

আমার এখনো ঘুম আসেনা কেন? ঘুমিয়ে কী লাভ, একদিন তো মরেই যাবো। চুপ, চুপ করে কী লাভ, এক দিন তো মরেই যাবো।আচ্ছা যাও, যে কী লাভ, একদিন তো মরেই যাবো। কোনদিন? কোনদিন বলে কী লাভ, একদিন তো মরেই যাবো।

তো জনাব কী চলছে? এতো জেনে কী করবেন, একদিন তো মরেই যাবেন।

কী হবে বের হয়ে, একদিন তো মরেই যাবো।

বাংলাদেশে এখন কী চলে ভাই? শুনে কী হবে, একদিন তো মরেই যাবো।

আমি তাকে খুঁজছি, যে আবিষ্কার করেছিলো, বেঁচে থেকে কী লাভ একদিন তো মরেই যাবো।

এতো ক্লাস করে কী করবি? একদিন তো মরেই যাবি। দশ টাকার বিরিয়ানি খেয়ে কী লাভ, একদিন তো মরেই যাবো।

ফাহিম, বাপজান আমার একটি কথা শুনবি? বল আম্মা। এই গরমে তুই পাঁচ দিন ধরে গোসল করিসনা। গন্ধে থাকতে পারতেছিনা। গোসল করবি কিনা বল? ফাহিম- গোসল করে কী হবে, একদিন তো মরেই যাবো।