এখনও এক পয়সাও পায়নি ইউএস-বাংলা

গত ১২ মার্চ কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলার ড্যাস ৮ কিউ ৪০০ উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়। এতে ২৬ বাংলাদেশি, ২২ নেপালি, ১ জন চীনাসহ ৪৯ জন নিহত হন। আর ১০ বাংলাদেশি, ৯ নেপালি, ১ মালদ্বীপের নাগরিকসহ ২০ জন আহত হন।

বিধ্বস্ত বিমানের জন্য সাধারণ বিমা করপোরেশন বিমার টাকা বাবদ ৩৩ কোটির বেশি টাকা পরিশোধ করার কথা বলা হলেও ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বলছে, তাদের অ্যাকাউন্টে এখনো কোনো টাকা জমা হয়নি।

একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে আজ দুপুরের দিকে অর্থ পরিশোধের বিষয়টি জানিয়ে খবর প্রকাশ করা হয়। এরপর ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সে যোগাযোগ করা হলে এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) কামরুল ইসলাম বিমার কোনো টাকা না পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

কামরুল ইসলাম বলেন, সাধারণ বিমা করপোরেশন আমাদেরকে ৩৩ কোটি টাকার বেশি অর্থ পরিশোধ করেছে বলে একটি বেসরকারি চ্যানেলে খবর প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয়- আমরা এখনো কোনো টাকা পায়নি।

তিনি বলেন, সেনা কল্যাণ ইন্সুরেন্স ও বিমা করপোরেশন এ নিয়ে কাজ করছে বলে আমি জানি। ছুটির দিনে কীভাবে ওই বার্তা আসলো- সে ব্যাপারে আমার জানা নেই।

বিমা বাবদ কত টাকা পাবে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স- জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, এটা অ্যাসেসমেন্টের দরকার আছে। তারপরই বলা যাবে। সেটা জটিল প্রক্রিয়া বলেও জানান তিনি।

ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স এই দুর্ঘটনার ক্ষতিপূরণ বাবদ পাবে ৫৮ কোটি ১০ লাখ টাকা। বিষটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ থেকে জানা গেছে।