এ কি করলেন শিব ঠাকুর ! হলেন ৬ মাসের জন্য নিষিদ্ধ

ছয় মাস ক্রিকেট খেলা থেকে নির্বাসিত হলেন ইংল্যান্ডের প্রতিভাবান তরুণ ক্রিকেটার শিব ঠাকুর। ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহের মতো মারাত্মক অভিযোগ উঠেছিল গত বছরেই। সবদিক বিবেচনা করে শিবের বিরুদ্ধে ইসিবি ও ওয়েলশ ক্রিকেট বোর্ড শাস্তি চূড়ান্ত করল।

২০১৮ সালের এপ্রিল মাস থেকেই শিবের খেলার উপর নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হচ্ছে। সেই শাস্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে তিন মাস পরে জুনে। বাকি তিন মাসের শাস্তি নির্ভর করবে আদালতের বিচারের উপর।

যুব পর্যায়ে ইংল্যান্ডের জাতীয় দলে খেলা শিব কাউন্টি ক্রিকেটে বেশ পরিচিত মুখ! লেস্টারশায়ারে খেলেছেন। বর্তমানে তিনি ডার্বিশায়ারের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ। তবে গত বছর শিবের কুকীর্তি প্রকাশ্যে আসার পরেই ডার্বিশায়ার ছেঁটে ফেলে তাঁকে।

কী করেছিলেন ঠাকুর? ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, গত বছর জুনে ডার্বিশায়ারে ম্যাকওয়ার্থের কাছে এক অ্যাপার্টমেন্টে দুই তরুণীর সামনে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে পোশাক খুলে ফেলেন তিনি। তারপরেই পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন এই ক্রিকেটার। তাঁর বিরুদ্ধে দু’টি ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। প্রতিটি ক্ষেত্রেই তাঁকে ‘ক্রিমিনাল’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

যদিও পরে তিনি এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছিলেন, ‘‘আমি আমার ষোল বছর বয়সি বান্ধবীকে নিয়ে খুশি। এমন কাজ আমি করিনি।’’