টুইন টাওয়ারে ৯/১১ হামলার মামলায় ফেঁসে যাচ্ছে সৌদি আরব
The news is by your side.

টুইন টাওয়ারে ৯/১১ হামলার মামলায় ফেঁসে যাচ্ছে সৌদি আরব

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরের সন্ত্রাসী হামলায় অর্থাৎ ৯/১১’র ধারাবাহিক ওই হামলায় প্রায় তিন হাজার হাজার মানুষ নিহত হয়।

নিউ ইয়র্কের টুইন টাওয়ারে হামলার ঘটনায় শতকোটি ডলার ক্ষতিপূরণের দাবিতে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে করা একটি মামলা চলমান রাখার ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের এক বিচারক।

যুক্তরাষ্ট্রে ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরের সন্ত্রাসী হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ৮০০ মার্কিন নাগরিক সৌদি আরবের বিরুদ্ধে ক্ষতিপূরণের মামলা করেছে।

ওই সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় সৌদি আরবের কথিত ভূমিকার কথা তুলে ধরে এ মামলা করা হয়।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৭ বছর আগে বিশ্বকে নাড়িয়ে দেওয়া ওই হামলায় সৌদি সরকারের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ আনা হয়েছে মামলায়, যদিও মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ মুসলিম দেশটি তা অস্বীকার করে আসছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, টুইন টাওয়ার হামলায় নিহতদের পরিবারের সদস্য, আঘাতপ্রাপ্ত প্রায় ২৫ হাজার মানুষসহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বীমা কোম্পানি এ মামলার ক্ষতিপূরণের আওতায় পড়বে।

এ মামলার অভিযোগ থেকে নিজেদের অব্যাহতির জন্য আদালতে আবেদন করেছিল সৌদি আরব। কিন্তু বুধবার ম্যানহাটন ডিস্ট্রিক্ট আদালতের বিচারক জর্জ ডেনিয়েলস ওই আবেদন খারিজ করে দেন।

অন্যদিকে সৌদি আরবের ন্যাশনাল কমার্শিয়াল ব্যাংক ও আল রাজি ব্যাংক এবং নির্মাণ প্রতিষ্ঠান বিন লাদেন গ্রুপ ৯/১১ হামলায় তহবিল ও আর্থিক সহায়তা দিয়েছিল, প্রমাণের অভাবে বিচারক এমন অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছেন।

আল-কায়েদার সন্ত্রাসীরা এ হামলা চালিয়েছে দাবি করে মামলার বাদিপক্ষ বলেছে, হামলাকারীদের তহবিল এবং সমর্থন যুগিয়েছে সৌদি আরব।

তারা আরও বলছে, হামলায় জড়িত অন্তত তিন জনের সঙ্গে আল-কায়েদার সম্পর্ক ছিল। এ ক্ষেত্রে সৌদি আরবের ভূমিকা শঠতাপূর্ণ বলে দাবি করেন তারা।