তিন তালাক দিলেন তো প্রস্তুত হন জেলের ঘানি টানতে?

রাগের মাথায় হুট করে তিন তালাক দিলে আর রক্ষা পাবেন না ঢুকতে হবে জেলখানার বন্ধি ঘরে। সেই সাথে গুনতে হতে পরে মোটা অংকের জরিমানা। একেবারে এমনই একটি আইন আনতে যাচ্ছে খোন ভারত সরকার। তিন তালাক সংক্রান্ত আইনের বিল সে দেশের পার্লামেন্টের শীতকালীন অধিবেশনে পেশ করা হবে বলে জানা গেছে। তবে আইন পেশ আলোচনা ভোটাভুটির পর যদি তা আইন হিসাবে পাশ হয়। তবে হয়ে যাবে তালাক আইন,ইতোমধ্যে জানা গেছে তিন তালাক আইনের বিলের খসড়া তৈরি হয়ে গেছে।

ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের তত্ত্বাবধানেই তৈরি হয়েছে এই ন্তালাক আইন । বিধি তে লেখা আছে , আইন অমান্য করে তাৎক্ষণিক তিন তালাক দিলে জামিন অযোগ্য ধারায় তাকে গ্রেপ্তার করা হবে এবং অভিযোগ প্রমাণিত হলে ৩ বছরের কারাদণ্ড, সেই সঙ্গে মোটা অংকের টাকা জরিমানা করা হবে।

তিন তালাক দেওয়া যে কোনও মুসলিম নারী আদালতের দ্বারস্থ হতে পারবেন এবং নিজের এবং সন্তানদের বর্তমান ও ভবিশ্যত ভরণপোষণের জন্য মোটা টাকা দাবি করতে পারেন। এমনকী অপ্রাপ্ত বয়স্ক শিশু সন্তানের দায়িত্ব দাবি করতে পারেন। তব এতিন তালাক আইন মৌখিক, লিখিত এবং ডিজিটাল যে কোনও উপায়ে দেওয়া তিন তালাকের ক্ষেত্রেই এই আইন বলবৎ হবে বলে খসড়ায় উল্লেখ করা হয়েছে।

বেশ কয়েক মাস আগেই তিন তালাক বেআইনি বলে ঘোষণা দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। তারপরেও খোদ ভারতবর্ষে একাধিক তিন তালাকের ঘটনা ঘটছে। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার বলছে সেই নির্দেশ যাতে কোনভাবেই কেউ অমান্য না করতে পারেন সে কারণেই এই শক্তপোক্ত আইন আনা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।