পাইলট ও কন্ট্রোলরুমের চরম উত্তেজনাকর কথোপকথন শুনুন অডিও

ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স BS-211 ফ্লাইটটি দুর্ঘটনায় ২ শিশুসহ ৫০ জন নিহতের খবর জানিয়েছে নেপাল পুলিশ। এছাড়া ১৭ জন মারাত্মক আহত হয়ে চিকিৎসাধীন আছে। নেপাল পুলিশের ‍মুখপাত্র ডিআইজি মনোজ নিউপেন এ তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

একটি সূত্রে জানা গেছে, বিমানটিতে চারজন ক্রুসহ ৩২ জন বাংলাদেশি যাত্রী ছিলো। তাদের মধ্যে দুইজনের পরিচয় জানা গেছে। তারা হলেন- পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য উম্মে সালমা ও নাজিয়া আফরিন চৌধুরী।

বিমানের পাইলট ক্যাপ্টেন হাফিজের কাছে গ্রাউন্ড থেকে সঠিক তথ্য পৌঁছাতে দেরি হওয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে একটি সূত্রে জানা গেছে। নেপালে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের ড্যাশ-৮ কিউ ৪০০ মডেলের উড়োজাহাজটি সোমবার ৭১ আরোহী নিয়ে নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হয়।

এ বিষয়ে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের  প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ইমরান আসিফ জানিয়েছেন, কন্ট্রোলরুমের ভুল তথ্যের জন্যই ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের  উড়োজাহাজটি বিধ্বস্ত হয়েছে। সেখানে কোনো যান্ত্রিক ত্রুটি ছিল না।

তিনি বলেন, বিমানবন্দরের কন্ট্রোলরুমের সঙ্গে পাইলটের যে কথা হয় সেখানে স্পষ্ট বুঝা যায় পাইলটকে ভুল তথ্য দেয়া হয়। আরটিভি অনলাইনের পাঠকদের জন্য সেই কথোপকথনের অডিও টি তুলে ধরা হলো।

ইমরান আসিফ জানান, ওই ফ্লাইটে মোট ৩২ জন বাংলাদেশি ছিলেন, নেপালের ছিলেন ৩৩ জন এবং চীন ও মালয়েশিয়ার দুই জন ছিলেন। এছাড়া দুইজন পাইলট, দুইজন ক্রু ও দুইজন কেবিন ক্রু ছিলেন। ফ্লাইটে প্রাপ্ত বয়স্ক ছিলেন ৬৫ জন এবং দুই শিশু ছিল।