পারলেন না মুশফিক

mushfiqur-rahim-Abu-Hider-rony-bangldesh-india-rtv-online-nidhas-trophy-আবু-হায়দার-রনি-বাংলাদেশ-ভারত-আরটিভি-অনলাইন-নিদাহাস ট্রফি

কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৭ রানের জয় পেয়েছে ভারত। নিদাহাস ট্রফির ষষ্ঠ ম্যাচে এ জয় দিয়ে ফাইনালে নিজেদের নাম লেখালেন রহিত শর্মার দল। ভারতের দেয়া ১৭৭ রানের লক্ষে ব্যাট করতে নেমে ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রান সংগ্রহ ।

শুরু থেকেই উইকেট দিয়ে আসতে থাকে টপ অর্ডাররা। ১.৫ ওভারের সময় দলীয় ১২ রানের সময় ৭ বলে ৭ রান করে রান আউটের ফাঁদে পড়েন লিটন দাস। এরপর ৩.৪ ওভারের সময় ওয়াশিংটন সুন্দরের বলে মাত্র ১ রান করে বোল্ড হন সৌম্য সরকার।

শুরু থেকেই দ্রুত রান তুলতে থাকা তামিম ইকবালও কাটা পরেন সুন্দরের কাছে। প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে ১৯ বলে ২৭ রানের ইনিংস খেলেন এই টাইগার ওপেনার।
দলপতি মাহমদুল্লাহ রিয়াদও সুবিধা করতে পারেননি উইকেটে এসে। ৮ বলে মাত্র ১১ রান করে তিনিও ফেরেন সাজঘরে।

শেষ ম্যাচের মতো এদিনও একাই টেনে নিচ্ছিলেন মুশফিকুর রহিম। তার সাথে জুটি গড়েন সাব্বির রহমান। ২৩ বলে ২৭ রানের ইনিংস খেলে এই হার্ড হিটার আউট হন ঠাকুরের বলে।

অন্যদিকে শেষ পর্যন্ত টিকে থেকেও দল জেতাতে পারেননি মুশফিক। ৫৫ বলে ৭২ রানের চমৎকার ইনিংস খেললেও জয়টা পায়নি যোগ্য সঙ্গীর অভাবে সেটি বলাই যায়। তার সঙ্গে ক্রিজে ছিলেন ৬ বলে ৭ রান করা মেহেদি হাসান মিরাজ। ভারতের হয়ে সুন্দর ৩টি উইকেট তুলে নেন। শারদুল ঠাকুর, মোহাম্মদ সিরাজ ও জুযবেন্দ্র চাহাল একটি করে উইকেট নেন।

এর আগে টস জিতে টাইগার অধিনায়ক ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন। দলে ছিল এক পরিবর্তন। পেসার তাসকিন আহমেদের বদলে দলে জায়গা হয় আবু হায়দার রনির।
রোহিত শর্মা-শিখর ধাওয়ানের জুটি থেকে আসে ৭০ রান। ধাওয়ানকে বোল্ড করেন রুবেল হোসেন। তার ব্যাটে আসে ২৭ বলে ৩৫ রান।

এরপর ১৯.১ ওভারের সময় আবারো আঘাত হানেন রুবেল। ৩০ বলে ৪৭ করা রায়নাকে ফেরান তিনি। অধিনায়ক রোহিত শর্মা আর সুরেশ রায়নার শত রানের জুটিতে ২০ ওভার শেষে ভারতীয়দের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২ উইকেট ১৭৬ রান। যদিও এখনো ফাইনালে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে টাইগারদের। আগামী শুক্রবার স্বাগতিক শ্রীলঙ্কাকে হারাতে হবে। সেখানেও আছে সমীকরণ।