প্রথমবারের মতো আইসিসি ওয়ানডে স্ট্যাটাস পেল নেপাল

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্লে-অফে পাপুয়া নিউগিনিকে ৬ উইকেটে হারিয়ে প্রথমবারের মতো আইসিসি ওয়ানডে স্ট্যাটাস পেয়েছে নেপাল। কাঙ্ক্ষিত স্বপ্ন পূরণ হয়েছে নেপালের।
বৃহস্পতিবার হারারের ওল্ড হারারিয়ানস মাঠে সন্দ্বীপ লামিচানে ও দিপেন্দ্র আইরির ৪টি করে উইকেট শিকারে ১১৪ রানেই অলআউট হয়ে যায় পাপুয়া নিউগিনি। পরে আইরির ৫৮ বলে অপরাজিত ৫০ রানে ১৬২ বল বাকি থাকতেই ম্যাচ জিতেছে নেপাল।

ওয়ানডে স্ট্যাটাস পাওয়ায় নেপাল, নেদারল্যান্ডসকে ধন্যবাদ দিতেই পারে। কারণ এদিন নেদারল্যান্ডস হংকংকে হারানোয় নেপালের সামনে সমীকরণটা সহজ হয়ে যায় এমন, ম্যাচ জেতো ওয়ানডে স্ট্যাটাস পাও। সমীকরণ মেলাতে কোনো বেগই পেতে হয়নি পরশ খড়কার দলকে।

তাদের বোর্ডের জন্য অবশ্যই সুখবর এটি। কারণ বর্তমানে তাদের বোর্ডের ওপর রয়েছে আইসিসির নিষেধাজ্ঞা। কিন্তু খেলোয়াড়দের একের পর এক সাফল্যের কারণে নেপালকে ওয়ানডে স্ট্যাটাস দিতেই হল ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থাটির।

‘বোর্ডের দায় খেলোয়াড়রা নিতে পারেন না’ -এমন ভাবনা থেকেই নেপালকে ওয়ানডে স্ট্যাটাস দিয়েছে আইসিসি।

অন্যদিকে পাপুয়া নিউগিনি ও হংকং ওয়ানডে স্ট্যাটাস হারিয়েছে। দুই দলই ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় বিভাগে নেমে গেছে। ২০২০ সালের আগে মাত্র একটিই আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছে তারা- শনিবার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে নবম স্থান নির্ধারণী ম্যাচ।