ফরিদপুরে সেই গলাকাটা যুবক জীবিত উদ্ধার

ঘটানাটা বাংলাদেশ-ভারত নিদহাস ট্রফির ফাইনাল নিয়ে। সেই ম্যাচকে কেন্দ্র করে বাজী ধরেছিলেন ফরিদপুরের তরুন আদেল। বাংলাদেশের পক্ষ নিয়ে দেড় লাখ টাকার বাজী ধরেন তিনি। কিন্তু সেই ম্যাচে বাংলাদেশ হেরে গেলে বিপদে পড়েন তিনি।সাথে সাথে করেন নিজেকে মৃত করার কান্ড।

যাতে ওই টাকা দিতে না হয় সেজন্য তৈরি করে মিথ্যা খুন হওয়ার ভিডিও। তার এই কাজে সহায়তা করে তার এক বন্ধু। সেইসঙ্গে ওই ভিডিও পাঠানো হয় পরিবারের কাছে। ছড়িয়ে দেয়া হয় ফেসবুকে। বর্তমানে ওই ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল।

এদিকে, ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া গলা কেটে হত্যা করা যুবক জীবিত অবস্থায় বাড়িতে ফিরে আসায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। যুবকের বাড়ি ফেরার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ওই যুবককে দেখতে তার বাড়িতে শত-শত উৎসুক এলাকাবাসী ভিড় জমান।

ফেসবুকে প্রকাশিত ওই ভিডিওতে দেখা যায়, একটি টিনের ঘরের মধ্যে সঙ্গে থাকা দুইজন এক যুবককে ব্লেড দিয়ে গলাকাটার চেষ্টা চালায়। গলাকাটা রক্তাক্ত ছবি মোবাইলে ধারণ করে আরও এক অজ্ঞাত ব্যক্তি।

এরপর মৃত যুবকের মোবাইল দিয়ে প্রথমে তার ছোট ভাই সাইদুর শিকদারের মোবাইলে একটি ভয়েস বার্তা পাঠানো হয়। ওই ভয়েস বার্তায় মৃত যুবক বলেন, আমি জীবিত থাকলে তোরা আমাকে বুধবার দেখতে পারবি।

আর সেই মৃত ব্যাক্তির এলাকায় ফিরে আসার পরে এলাকায় শুরু হয় চাঞ্চাল্যকর। এরপর পরেই সেই এলাকায় গিয়ে সেই প্রতারককে আটক করেন পুলিশ।