বাংলাদেশকে নিয়ে নতুন আতঙ্কে হাথুরুসিংহে ও শ্রীলঙ্কা

শ্রীলঙ্কায় চলমান নিদাহাস ট্রফির গ্রুপ পর্বের রয়েছে আর একটি ম্যাচ। যেখানে লড়বে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা্ ও বাংলাদেশ। বাংলাদেশে ও শ্রীলঙ্কা এ সিরিজে দুদলই একটি করে ম্যাচ জিতেছে। ফলে ভারতের সাথে ফাইনালে যেতে হলে শেষ ম্যাচ দু্দলের জন্যই বাঁচা মরার লড়াই। যে দল জিতবে সেই চলে যাবে ফাইনালে।

এদিকে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড জানিয়েছে, টি-টুয়েন্টিতে দেশের নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব উড়ে যাচ্ছেন কলম্বোতে। নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে ওঠার লড়াই শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে শুরু। হারলেই বিদায়। ভারত আগেই ফাইনালে উঠে বসে আছে। তো এমন জটিল একটা পরিস্থিতিতে সাকিবের ইনজুরিমুক্ত হয়ে দলে ফেরা বাংলাদেশের জন্য বড় খবর।

এমন সংবাদে বেশে দু:চিন্তায় পরেছে শ্রীলঙ্কা ও তাদের কোচ হাথুরুসিংহে। সংবাদ সম্মেলনে এসে যখন শুনেছেন তার পুরোনো শিষ্য সাকিব আল হাসান শ্রীলঙ্কায় আসছেন। খেলবেন শুক্রবারের বাঁচা-মরার লড়াইয়ে। যেটি আক্ষরিক অর্থেই সেমি ফাইনাল। এমন এক ম্যাচে বাংলাদেশের সাকিবকে পাওয়া বড় প্রেরণা।

আর বিশ্বের অন্যতম অল রাউন্ডারের ফেরার খবর প্রতিপক্ষের জন্য যেমন সুবিধার, তাদের জন্য তেমনই অসুবিধার তা একপ্রকার মানলেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। সতর্ক কণ্ঠে জানিয়ে গেলেন, শুক্রবারের ম্যাচে তাদের বিপক্ষে আরো শক্তিমান হয়েই নামবে বাংলাদেশ।

আগের ম্যাচে ২১৪ রান করেও হেরেছে লঙ্কানরা টাইগারদের কাছে। এখন তো একজন বিশ্বমানের খেলোয়াড়ই বেড়ে গেল বাংলাদেশ দলে। যদিও সে দলে সাকিব ছিলনা। আর শুক্রবারের ম্যাচে সাকিব থাকায় চিন্তিত শ্রীলঙ্কা।

কলম্বোর প্রেস কনফারেন্সে এই খবরে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের সাবেক এবং শ্রীলঙ্কার বর্তমান কোচ হাথুরুসিংহে বললেন, ‘আমার চোখে এটা তাদের সুবিধা করে দিল। কারণ, এতে করে তারা ভিন্ন কম্বিনেশনে খেলতে পারবে। সুযোগ থাকবে একজন বাড়তি বোলার কিংবা ব্যাটসম্যান নেওয়ার।’

কোচ বললেন, ‘এটা আসলে তাদের (বাংলাদেশ) সৌভাগ্য যে এমন একটা ম্যাচের আগে ও (সাকিব) সুস্থ্য হয়ে উঠেছে।’