বালি দ্বীপে ২৪ ঘণ্টা টেলিফোন ও ইন্টারনেট বন্ধ, ৫শ’ ফ্লাইট বাতিল

ইন্দোনেশিয়ার বালিতে আগামী শনিবার দেশটির অন্যতম একটি ধর্মীয় উৎসব ‘নায়েপি’আয়োজন উপলক্ষে ২৪ ঘণ্টা টেলিফোন ও ইন্টারনেট সেবা বন্ধ থাকছে।

বালি দ্বীপের টেলিফোন কোম্পানি ও ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডাররা টেলিফোন, মোবাইল নেটওয়ার্ক ও ইন্টারনেট সেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর ফলে মোবাইল ফোন এবং সোশাল মিডিয়ার সাইটগুলোতে স্থানীয় বাসিন্দারা যেতে পারবেন না।

আগামী শনিবার বালিতে ‘নায়েপি’ পালিত হবে। বালি দ্বীপের হিন্দু জনগোষ্ঠী এই দিনটিকে নীরবতার দিন হিসেবে পালন করে থাকেন। এ দিনটি উদযাপনের মাধ্যমে সনাতন ধর্মাবলম্বী ইন্দোনেশিয়ান হিন্দুরা নতুন বছরকে স্বাগতম জানায়। আগুন, ভ্রমণ, শারীরিক কর্মকাণ্ড এবং বিনোদন ছাড়া তারা দিনটি অতিবাহিত করে। কেউ কেউ আবার এই দিনে পুরোপুরি উপবাস অবস্থায় থাকে এবং কারো সঙ্গে কথা বলে না।

“আসুন, অন্তত একদিন ইন্টারনেট থেকে মুক্তি নেই,” বলছিলেন ইন্দোনেশিয়ান হিন্দু সোসাইটির প্রধান গুষ্টি এনগুরা সুদাইনা। বছরে অন্তত একদিন প্রযুক্তি বাদ নিজেদের দিকে দৃষ্টি ফেরানোর আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এদিন স্থানীয় বিমানবন্দরও বন্ধ থাকবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে। বালির এনগুরা রাই বিমানবন্দরের জেনারেল ম্যানেজার ইউনুস সুপ্রায়োগি বলছেন, বিমানবন্দর বন্ধ থাকার সময়টাতে ২৪৪টি অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট এবং ২৩৮টি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ থাকবে।

ইন্দোনেশিয়ার টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা নিওমান সাজায়ম বলছেন, নীরবতার দিনটি পালনের জন্য টিভি এবং রেডিও সম্প্রচারও বন্ধ থাকবে।

গেলো বছরও বালির হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা এই দিবস উপলক্ষে সকল ধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে দেবার দাবী উঠিয়েছিল। কিন্তু এবারই প্রথমবারের মতো ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ করে দেবার দাবীকে মেনে নেয় ইন্দোনেশিয়া সরকার।