বিরাট এসে গেল মাধ্যমিকেও কিভাবে জানুন

এবার মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রশ্নে লিখতে বাধ্যতামুলক করা হল কোহলির জীবনী লিখতে। শিক্ষার্থীরাও বেশ উজ্জিবীত পরীক্ষার হলে বিরাট কোহলিকে পেয়ে।শিক্ষার্থীদের কোহলির নিয়ে লিখতে তেমন কোন অসুবিধা হয়নি। পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১১ লাখ ২৯২১ জন তবে সবার জন্য কোহলির জীবনী লেখা ছিল বাধ্যতামূলক।প্রশ্নের মান ছিল ১০।

৯৮৮ সালের ৫ নভেম্বর দিল্লির পাঞ্জাবি পরিবারে জন্ম বিরাট কোহলির। বাবা প্রেম কোহলি আইঞ্জীবি আর মা সরোজ কোহলি ছিলেন গৃহিণী। ২০০৬ রিরাট দিল্লির হয়ে রঞ্জি ট্রফি যখন খেলছিলেন তখন তার বাবা প্রেম কোহিলি মারা যান। এরপর ২০০৮ সালে ভারতীয় দলের জার্সি পরেন কোহলি। তার পর থেক এতাকে আর ফিরে থাকাতে হয়নি।

মাত্র তিন বছরের অভিজ্ঞতায় টিম ইন্ডিয়ার টেস্ট দলের কান্ডারি হয়ে ওঠেন কোহলি। ২০১৪ ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফরের মাঝে মহন্দ্রে সিং ধোনির টেস্ট অবসরে ভারতীয় টেস্ট দলের নেতৃত্বের ব্যাটিংটা ওঠে বিরাটের হাতে। দুই বছর পর ধোনি ওয়ানডে এবং টি-২০ ফরম্যাটের নেতৃত্ব ছাড়ার পর বিরাটের হাতে ওঠে টিম ইন্ডিয়ার নেতৃত্ব।