বিশ্বকাপের শেষ প্রস্তুতিতে মাঠে নামার অপেক্ষায় মেসিরা

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে ১৬ জুন মস্কোতে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে মেসির দল আর্জেন্টিনা। ১৯৭৮ ও ১৯৮৬ এর বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা এবার পড়েছে ডি গ্রুপে। ২১ জুন গ্রুপর্বের তাদের দ্বিতীয় ম্যাচ ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে, নিঝনি নভগোরোদে। আর গ্রুপর্বের শেষ ম্যাচ ২৬ জুন সেন্ট পিটার্সবার্গে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে।

তবে রাশিয়া বিশ্বকাপ মিশন শুরুর আগে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা শেষ প্রস্তুতিটা নেবে ইসরাইলে। এবারই প্রথম নয় এমন প্রস্তুতি, আগেও এরকম ইতিহাস আছে বেশ কয়েকবার। তো লিওনেল মেসিরা প্রি-ওয়ার্ল্ড কাপ ফ্রেন্ডলি ইন্টারন্যাশনাল ম্যাচটা ইসরাইলের সাথে ইসরাইলে খেলবেন ৯ জুন। এই তথ্য জানিয়েছে ইসরাইল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (আইএফএ)।

তবে ম্যাচটির জন্য ভেন্যু এখনো চূড়ান্ত করা যায়নি। আইএফএ একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে, তেল আবিব ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে তারা খেলা বন্ধ করে দিয়েছে। বড় আন্তর্জাতিক ম্যাচ তাই অনুষ্ঠিত হয় এখন হয় হাইফায় নইলে জেরুজালেমে। ‘আলোচনা চলছে। সামনের দিনগুলোতে চুক্তির বিস্তারিত চূড়ান্ত করা হবে-‘ জানিয়েছে আইএফএ।

আর্জেন্টিনা এর আগে চারবার বিশ্বকাপে যাওয়ার পথে প্রি-ওয়ার্ল্ড কাপের শেষ স্টপওভার হিসেবে ইসরাইলে থেমেছে। ১৯৮৬ সালে ডিয়েগো ম্যারাডোনার দল ইসরাইলে ৭-২ গোলে ম্যাচ জিতেছিল। এরপর মেক্সিকোতে গিয়ে তো বিশ্বকাপ শিরোপাই জিতে নিয়েছিল। এছাড়া ১৯৯০ সালে ইসরাইলে ২-১ গোলে, ১৯৯৪ সালে ৩-০ গোলে জিতেছিল। ১৯৯৮ সালে অবশ্য ২-১ গোলে হের গিয়েছিল আর্জেন্টাইনরা।