মাশরাফি-নাসিরের বোলিং তোপে অল্পতেই থেমে গেল দোলেশ্বর

0

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে আজ মুখোমুখি হয়েছে আবাহনী লিমিটেড এবং প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছে তারা। টসে জিতে ব্যাটিং করতে নেমে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। ব্যাট করতে নেমেই মাশরাফি বোলিং তোপে দিশেহারা দোলেশ্বর।

গত ম্যাচের মতো আজকেও বল হাতে শুরুটা দারুণ করেছেন আবাহনীর পেস তারকা মাশরাফি বিন মর্তুজা। অগ্রণী ব্যাংকের বিপক্ষে গত ম্যাচে ৪ বলে ৪ উইকেট নিয়ে ইতিহাস রচনা করা মাশরাফি।

আজ তুলে নিয়েছেন মার্শাল আইয়ুবের গুরুত্বপূর্ণ উইকেটটি। ফলে টসে জিতে ব্যাটিং করতে নেমে মাত্র ৩৯ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়েছে ফরহাদ রেজার প্রাইম দোলেশ্বর দলটি। তবে এদিন দোলেশ্বর শিবিরে প্রথম আঘাত হানার কাজটি করেছিলেন আরিফুল ইসলাম সবুজ।

প্রতিপক্ষ দলের দুই ওপেনার আবু সায়েম এবং ইমতিয়াজ হোসেনকে সাজঘরে ফেরত পাঠিয়েছেন তিনি। ৩৩ রানের মাথায় ২ ওপেনারকে হারিয়ে ফেলা দোলেশ্বরকে দশম ওভারে এসে আরো বিপদে ফেলে দেন মাশরাফি। মার্শাল আইয়ুবকে সাইফ হাসানের হাতে ক্যাচ বানিয়ে আউট করেন তিনি।

এদিকে ফজলে মাহমুদ ৬৮ ও ফরহাদ হোসেন ৬৩ রানে সুবাদে কিছুটা সুবিধা করতে পারলেও বাকিরা তেমন কোন রান করতে পারনি। তবে অধিনায়ক ফরহাদ রেজা ২৬ বলে ২ ছাক্কার সাহায্যে ২৮ রান করেন। মাশরাফির বলে সাইফ হাসানের হাতে ধরাপড়ে ফিরে যান ফরহাদ রেজা। ফজলে মাহমুদ, ফরহাদ হোসেন ও অধিনায়ক ফরহাদ রেজার ব্যাটিংয়ে ভর করে শেষ পর্যন্ত ৫০ ওভার ৯ উইকেট হারিয়ে ২৩২ রানে আটকে যায় প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব।

এদিকে আবাহনীর মাশরাফি ১০ ওভারে ৪৭ রান দিয়ে নিয়েছেন ২ টি উইকেট। পাশাপাশি অধিনায়ক নাসির হোসেন কোন উইকেট না পেলেও ১০ ওভার করে মাত্র ৩০ রান দিয়েছেন। তবে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব মুল মেরুদণ্ড ভেঙে দেন মানান শর্মা। মানান শর্মা ১০ ওভার বল করে ৪৪ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ উইকেট। তিনিই সবচেয়ে সফল বোলার। অন্যদিকে আরিফুল ইসলাম সবুজ ৬ ওভার বল করে একটি মেডেন নিয়ে ২৯ রান দিয়ে পেয়েছেন ২ টি উইকেট।

এখন জিততে হলে মাশরাফির আবাহনী লিমিটেডকে ৫০ ওভারে ২৩২ রান করতে হবে। আর ফরহাদ রেজাদের ২৩২ রানের মধ্যে আটকাতে হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.