মোটা হওয়ার কারনেই স্ত্রীকে তালাক দিয়েছিলেন লায়ন

অস্ট্রেলিয়ার অন্যতন সেরা স্পিনার লায়ন তার স্ত্রীকে ডিভোর্স দিয়েছিলেন গতবছরেই। আর এই ডিভোর্স পাওয়ার পরেই স্ত্রী ওয়ার্নিং এই নিয়ে একটি ব্লগ লিখেন। সেই ব্লগে স্ত্রী ওয়ার্নিং জানান তাকে ডিভোর্স দেওয়ার কাহিনী।

ওয়ার্নিং লিখেন ,’‘২০১৭ সালের ডিসেম্বরে আমার জীবন হুড়মুড় করে ভেঙে পড়ে। সব শেষ হয়ে যায়। চলে যায় আমার সঙ্গী। প্রতিদিন একটা প্রশ্নই আমার মনে আসে, আমি কেন যথেষ্ট ছিলাম না? মোটা হয়ে গিয়েছিলাম বলে?’

Advertisement

ওয়ার্নিং আরো লিখেন ,’নাথানের বর্তমান সম্পর্কের বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। কিছু জানতেও চাইনি। সে ছিল আমার জীবন জুড়ে। সবকিছু শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত তার প্রতি মনপ্রাণ দিয়ে ডুবে ছিলাম।’

উল্লেখ্য যে, লায়ন তার স্ত্রী ওয়ার্নিংকে ডিভোর্স দেন গত বছরেই। তাদের ঘরে আছে দুইটি মেয়ে সন্তান।