“যশোর টু সাতক্ষীরা” ভয়ানক মৃত্যুর ফাঁদ

একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটেই চলেছে। কখোনো বাস দুর্ঘটনা, কখোনো বাইক দুর্ঘটনা, কখোনো ট্রাক দুর্ঘটনা। কোনো পরিবহনই রেহাই পাচ্ছে না এই রাস্তা থেকে।

দুর্ঘটনা যেন হয়ে দাড়িয়েছে নিত্য দিনের ব্যাপার।

এক্সিডেন্ট যেনো এখানকার নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। ছোটো ছোটো কচি বাচ্চা থেকে শুরু করে বৃদ্ধ মানুষটি পর্যন্ত রেহাই পাচ্ছে না এই অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা থেকে। মহাকালের অতল গহব্বরে পরিণত হয়েছে এই রাস্তাটি। এখানকার মানুষ গুলো এখন এই রাস্তা দিয়ে চলতে ভয় পায়।

সংস্কারের অভাবে রাস্তা হয়ে পড়েছে বেহাল। এখানকার রাস্তা গুলো এতো নরবড়ে যে ২ ঘন্টার পথ যেতে গাড়ির চালক কে ৩ ঘন্টা সময় নিতে হয়। অনেক অনুনয় বিনয়ের পরে নাভারন টু সাতক্ষিরা সংস্কার করা হলেও এখনো অনেক পয়েন্টই সংস্কার করা হয় নি।

সর্বোপরি, এই রাস্তাটা যেনো এখন মৃত্যুফাঁদে পরিণত হয়েছে। একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটেই চলেছে।

তবুও আমাদের উপর মহলের মানুষ গুলা কেমন চোখ বন্ধ করে বসে আছে। তারা যেনো চোখ থাকতেও অন্ধ হয়ে গেছে। চোখ খোলার সময় এসেছে। একটু চোখ টা খুলে দেখেন। আর কতোদিন অন্ধ সেজে থাকবেন…..?