যৌন হেনস্তা নিয়ে মুখ খুললেন ঐশ্বরিয়া

২০১৭ সালের মাঝামাঝি হলিউড প্রযোজক হার্ভে ওয়েনস্টেইন বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ নিয়ে সোশ্যাল সাইটগুলোতে শুরু হয়েছিল ‘মি টু’ ক্যাম্পেইন’। ২০১৮ সালের গোড়ার দিকে গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডেও এই ক্যাম্পেইনকে সমর্থন করে কালো পোশাকে হেঁটেছিলেন হলিউডের নায়িকারা।

তবে এই ক্যাম্পেইন শুধু হলিউডেই থেমে থাকেনি। পৌঁছে গিয়েছিল বলিউডের দরজাতেও। বলিউডে যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খোলেন রাধিকা আপ্তে, বিদ্যা বালানের মতো অভিনেত্রীরা। এবার সেই মি টু ক্যাম্পেইনে সাড়া দিয়ে এগিয়ে এলেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন।

শোনা যায়, হার্ভে ওয়েনস্টেইন এক সময় ঐশ্বর্যকে ‘পেতে’ মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন। এমনকি, ঐশ্বর্যকে পেতে হলে বেশ বড় অঙ্কের অর্থ দিতেও রাজি ছিলেন তিনি। কিন্তু, রাই সুন্দরীকে কখনও বাগে আনতে পারেননি।

ঐশ্বরিয়ার তৎকালীন ম্যানেজার সাইমন শেফিল্ড বলেন, ঐশ্বর্যকে কাছে পেতে এক সময় পাগলের মতো ব্যবহার করতেন হার্ভে ওয়েনস্টেইন। কী করলে ঐশ্বর্যকে পাওয়া যাবে- এমন প্রশ্নের জবাব সাইমন জানিয়ে দিয়েছিলেন, হাজার চেষ্টা করলেও ঐশ্বর্যকে পাবেন না হার্ভে।

ওই বিষয়ের পর এবার ‘মি টু’ ক্যাম্পেইন নিয়ে মুখ খুললেন ঐশ্বরিয়া। বললেন, নারীদের যাতে কোনোভাবে যৌন হেনস্থার মতো ঘটনার সম্মুখীন না হতে হয়, সেজন্য আরও বেশি করে সচেতনতা প্রয়োজন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের পাশাপাশি যৌন হেনস্থা নিয়ে সমাজের প্রতিটি মানুষ সরব হতে হবে। সূত্র: জিনিউজ।