সিরাজগঞ্জে সৌম্য’র ব্যাটিং তাণ্ডবে হেরে গেল সাব্বিরের দল

সিরাজগঞ্জ প্রিমিয়ার লিগ (এসপিএল) টি-টোয়েন্টির দ্বিতীয় আসরের ফাইনাল ম্যাচে জাতীয় দলের অন্যতম ওপেনার সৌম্য সরকারের ব্যাটিং তাণ্ডবের কাছেই হেরে গেল জাতীয় দলের আরেক ক্রিকেটার সাব্বির রহমানের দল লায়ন্স। ৭ উইকেটের জয় নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়ন হলো সিরাজগঞ্জ টাইগার্স।

শুক্রবার (২৩ মার্চ) দুপুরে শহীদ শামসুদ্দিন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফাইনাল ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে ১৪৩ রানের লক্ষ্য নিয়ে ব্যাট করতে নামে সিরাজগঞ্জ টাইগার্স। দুই ওপেনার সৌম্য সরকার ও অধিনায়ক মিলনের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৬ ওভার ১ বলেই ৭৮ রান জমা হয় স্কোর বোর্ডে।

মোহাম্মদ আশরাফুলের বলে ক্যাচ দিয়ে অধিনায়ক মিলন ফিরে গেলেও সৌম্য চার আর ছক্কার মারে পুরো গ্যালারি মাতিয়ে রাখেন। দলীয় ১১৬ রানের মাথায় ৩৪ বলে ৪টি চার ও ৬টি ছক্কায় সাজানো ৬৬ রানের ইনিংস খেলে রান আউটের শিকার হয়ে ফেরেন তিনি।

সৌম্য’র বিদায়ের পর জাতীয় দলের আরেক ক্রিকেটার শুভাগত হোম ১১ বলে অপরাজিত ২৪ রান তুলে ৬ ওভার ১ বল বাকি থাকতেই দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন। দলীয় সংগ্রহ দাঁড়ায় তিন উইকেটে ১৪৬। লায়ন্সের পক্ষে ৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে দুটি উইকেট নেন মোহাম্মদ আশরাফুল।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে টাইগার্স বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪২ রান করে লায়ন্স। সাব্বির রহমান সর্বোচ্চ ৩৭ রান করেন। এছাড়াও জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক আশরাফুল ১৮, স্থানীয় খেলোয়াড় খালিদ ২২ ও অধিনায়ক সুমন সাহা ১৯ রান সংগ্রহ করেন।

টাইগার্সের পক্ষে ৪ ওভারে ১৯ রান দিয়ে দু’টি উইকেট লাভ করেন নয়ন। জাতীয় দলের তারকা সৌম্য ৪ ওভার ২০ রান দিয়ে একটি উইকেট লাভ করেন।

উল্লেখ্য, গত ৯ মার্চ বিপিএলের আদলে ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক এসপিএল টি-২০ দ্বিতীয় আসর শুরু হয়। খেলায় টাইগার্স ও লায়ন্স ছাড়াও আরও তিনটি দল অংশ নেয়। প্রায় ২০ হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে ফাইনাল ম্যাচটি জমজমাট হয়ে ওঠে।