অন্ধকে সাহায্য করতে গিয়ে সবকিছু নিয়ে উধাও

0

‘অন্ধজনে দেহো আলো।’ কবিগুরু লেখাতেই বোধহয় শোভা পায় এ কথা। বাস্তবের চিত্রটা ঠিক তার বিপরীত মনে হয়। না হলে এক দৃষ্টিহীন ছাত্রকে পথ দেখানোর নাম করে তাঁর সর্বস্ব চুরি করে নিতে পারে কেউ! শনিবার হাওড়া স্টেশনে এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে। যার জেরে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে স্টেশন চত্বরে।

অভিযোগ, রবীন্দ্রভারতীর বাংলার প্রথম বর্ষের দৃষ্টিহীন ছাত্র জীবন রক্ষিত এদিন আদ্রা থেকে হাওড়া আসছিলেন শিরোমণি এক্সপ্রেস ধরে। হাওড়া আসার পর ট্রেন থেকে নামার সময় একজনকে সাহায্য করার প্রস্তাব দেয়। সাহায্যকারী ব্যক্তি তাঁকে নামিয়ে ব্যাগটি নিয়ে হাত ধরে সাহায্য করেন এগনোর জন্য। এর পরেই সুযোগ বুঝে গা-ঢাকা দেয়।

জীবন যখন বিষয়টি অনুধাবন করলেন তখন পাখি-ধাঁ। এর পরই জীবন হস্টেলে গিয়ে সহপাঠী অন্য দৃষ্টিহীন ছাত্রদের বিষয়টি জানান। তাঁরা এদিন বিকেলে রেল পুলিশ থানার সামনে নিরাপত্তার দাবিতে বিক্ষোভ দেখান। দাবি তোলেন, খোয়া যাওয়া সার্টিফিকেট, অ্যানড্রয়েড মোবাইল পুলিশকে খুঁজে দিতে হবে। অভিযোগ পেয়েই পুলিশ স্টেশনের সিসিটিভির ফুটেজ খতিয়ে দেখা শুরু করে। হকার ও ভবঘুরেদের কাছে অপরাধীদের শনাক্ত করার জন্য একাধিকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। চেষ্টা করা হচ্ছে যাতে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব অভিযুক্তকে ধরে দৃষ্টিহীন ছাত্রের খোয়া যাওয়া জিনিসগুলি তাঁকে ফিরিয়ে দেওয়া যায়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.