ইনজুরি নিয়েই হটাৎ অনুশীলনে তামিম, জিতলেন বাজি!

ইনজুরির কারণে মাঠের বাইরে রয়েছেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। কিন্তু আজ হটাৎ অনুশীলনে নেমে পড়েন তিনি। মূলত একাডেমি মাঠের দুইপাশে আবাহনী লিমিটেড, গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ও প্রাইম দোলেশ্বরের ক্রিকেটাররা অনুশীলনে ব্যস্ত ছিলেন। আর মাঝের উইকেটে তামিমকে ব্যাট করতে দেখে সবাই হতবাক।

অন্যদিকে বোলারকে দেখে আরো বিস্মিত সবাই। কারণ তিনি গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের কোচ মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন। তামিমকে ব্যাট করতে দেখে সবাই বিস্মিত। কারণ ইনজুরির কারণে তাকে মাঠের বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছেন বিসিবি চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী। তার তো মাঠে থাকার কথা না। একটু পরেই যোগ দিলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। সবাই যেন মাঝের উইকেটের দিকে তাকিয়ে আছে।

আজ রোববার ফিজিওথেরাপি নিতে মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে আসেন তামিম। সেখান থেকেই একাডেমী মাঠে যান তিনি। তারপর সেখানে অনুশীলন করতে থাকা গাজী গ্রুপের এক খেলোয়াড়ের হাত থেকে ব্যাট নিয়ে ব্যাটিং শুরু করে দিলেন তামিম। বোলিংয়ে ছিলেন তরুণ অফস্পিন অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান।

তারপর সেখানে এগিয়ে গেলেন কোচ সালাহউদ্দিন। আর তারপরেই দুই এক কথায় তামিমের সাথে বাজি লেগে যান তিনি। তার দুই ওভারে ১২ রান নিতে হবে তাকে। আম্পায়ার হিসেবে ছিলেন নাদিফ চৌধুরী। তবে তাদের মাঝে মধ্যে দুই একটি রায় দিয়েছেন তরুণ মেহেদীও। তবে দৌড়ে কোনো রান নিতে হয়নি তামিমকে। কারণ তার শটে আম্পায়ার বলে দিবে ১ রান হয়েছে নাকি ২ রান।

মাঠের এক কর্ণারে আড্ডা দিতে থাকা মাশরাফি তাদের বাজির কথা শুনে যোগ দিলেন তিনিও। এসে তামিমকে জানিয়ে দিলেন ৪টি বল স্পিন করবেন তাতে একটাও ছক্কা হাঁকাতে পারবেন না তামিম। প্রথম বল দেখে খেলার পর দ্বিতীয় বল কাভারে, তৃতীয় বল মিড অফে ক্যাচ তুলে দেন তামিম। তবে শেষ পর্যন্ত তামিম জিতে যায়। ৯ বল খেলেই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছে যান তিনি।