এবার উল্টো বিপদে হাসিন, সামির আইপিএল রুখতে যা করল অবাক হয়ে যাবেন

মহম্মদ শামিকে আটকাতে এবার নয়া খেল শুরু করলেন তাঁ স্ত্রী হাসিন জাহান। বোর্ডের দুর্নীতিদমন শাখা তদন্ত করে শামির বিরুদ্ধে কোনও কিছুই পায়নি। ফলে দেশের হয়ে ও আইপিএল খেলাতেও কোনও বাধা নেই শামির। কিন্তু শামির খেলা আটকাতে এবার দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের সিইও-র সঙ্গে দেখা করলেন হাসিন।

স্বামীর বিরুদ্ধে পরকীয়া, অবৈধ সম্পর্ক এমনকী ম্যাচ ফিক্সিংয়েরও অভিযোগ এনেছিলেন হাসিন। কিন্তু কোনও কিছুই ধোপে টেকেনি। বোর্ড অবশ্য বিষয়টি সিরিয়াসলি নিয়েছিল। নীরজ কুমারের নেতৃত্বে বোর্ডের দুর্নীতিদমন শাখা পুরো বিষয়টির তদন্তে নামে। যদিও শামি যে কোনও কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িয়ে এমন কিছুই প্রমাণিত হয়নি। ফলে বোর্ড শামিকে ক্লিনচিট দেয়। দেশের হয়ে ও আইপিএল খেলা নিয়ে শামির তাই কোনও সমস্যা নেই। তবে স্বামী হিসেবে শামির ভূমিকাকে বরাবরই প্রশ্নের মুখে ফেলেছেন হাসিন। এ ব্যাপারে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখাও করে এসেছেন তিনি। কিছুদিন আগেই শামি দুর্ঘটনার কবলে পড়লে তাঁকে দেখতে যান হাসিন। যদিও সেখানে স্ত্রীর সঙ্গে কোনও কথা বলেননি শামি। বরং জানান, যা বলার তিনি আদালতেই বলবেন।

এরপরই ফের নয়া পদক্ষেপ হাসিনের। দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের সিইও হেমন্ত দুয়ার সঙ্গে দেখা করেন তিনি। শামি যাতে আইপিএল-এ খেলতে না পারেন, সে ব্যাপারেই অনুরোধ করেন তিনি। যদিও হাসিনের অনুরোধ মানা বা না-মানা নিয়ে কোনও উচ্চবাচ্য করেনি ফ্র্যাঞ্চাইজি। এখানেই শেষ নয়, শামির খেলা রুখতে বোর্ডেরও দ্বারস্থ হয়েছিলেন হাসিন। দেখা করেছিলেন বোর্ডের অ্যাকটিং প্রেসিডেন্ট সি কে খান্নার সঙ্গে। খান্না সে কথার সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন, তিনি হাসিনকে বলেছেন, এটা ব্যক্তিগত বিষয়। তার সঙ্গে বোর্ডের চুক্তিতে থাকা খেলোয়াড়ের খেলার কোনও সম্পর্ক নেই।

গোড়ার দিকে একের পর এক অভিযোগ তুলে নিজের দিকে সমবেদনার হাওয়া কেড়েছিলেন হাসিন। কিন্তু বোর্ডের ক্লিনচিট দেওয়ার পরই প্রমাণিত হচ্ছে, হাসিনের অভিযোগ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তা বুঝতে পেরে ঝামেলা মেটানোর পথেও হেঁটেছিলেন হাসিন। কিন্তু এবার অনড় শামি। আর তাই শামির খেলা বন্ধ করতে প্রায় মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছেন হাসিন বলেই মনে করছেন শামির অনুরাগীরা।