নম্বর বাড়িয়ে দেয়ার জন্য খাতায় টাকা রেখে দিল পরীক্ষার্থীরা!

0

দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষায় নকল রুখতে প্রথম থেকেই আঁটঘাট বেঁধে নেমেছিল উত্তরপ্রদেশ সরকার। পরীক্ষার হলে নকল রুখতে একগুচ্ছ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল। যার ফলে দেখা গিয়েছিল, প্রায় ১০ লক্ষ ছাত্র ছাত্রী পরীক্ষাতে বসেইনি।

এখানেই অবশ্য শেষ নয়। উত্তর প্রদেশের অনেক শিক্ষকই ছাত্রদের পরীক্ষার খাতার মধ্যে টাকা পেয়েছিলেন। এবারে পাওয়া যাচ্ছে প্রেমের বিভিন্ন কবিতা ও পংক্তি।

উত্তরপত্র খুললেই পাওয়া যাচ্ছে বিভিন্ন প্রেমের কবিতা। কোথাও লেখা রয়েছে, ‘‘পূজা আমি তোমায় ভালোবাসি’’! উত্তরপত্র জুড়ে এমনই প্রেমের কবিতা লিখে রেখেছে পড়ুয়ারা। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এমনটাই প্রকাশিত হয়েছে।

কেউ লিখেছে, ‘‘আমার বাড়িতে মা নেই, পরীক্ষায় বাজে নম্বর পেলে বাবা আমায় মেরে ফেলবে।’’ এমনই সব লেখা দেখে চমকে উঠেছেন পরীক্ষকরা!

মুজাফফরনগরের জেলা স্কুল পরিদর্শক নিজেই স্বীকার করেছেন, পরীক্ষার উত্তরপত্র জুড়ে এমনই সব লেখা দেখা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৭ই মার্চ থেকে শুরু হয়েছে উত্তরপত্র পরীক্ষা করা। ২৪৮টি কেন্দ্রে প্রায় এক লাখ পরীক্ষক উত্তরপত্র দেখছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.