খাগড়াছড়ি ছাত্রলীগ সম্পাদক জহির উদ্দিন ফিরোজের পিতার ইন্তেকাল

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি : খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রীগের সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন ফিরোজের পিতা মো: ফিরোজ আহম্মেদ (ফিরোজ মাষ্টার) আর নেই (ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাহি রাজেউন)। সোমবার (২৫ জুন) সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে স্টোক করে তিনি শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর। মৃত্যুকালে তিনি ৩ ছেলে ও ভাই ৩ মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

জহির উদ্দিন ফিরোজের পিতার মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছে উপজাতীয় শরণার্থী বিষয়ক টাক্সফোর্স চেয়ারম্যান (প্রতিমন্ত্রী) ও খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী,খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও সড়ক পরিবহণ মালিক (শান্তি পরিবহণের) গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক এসএম শফি,খাগড়াছড়ি পৌর মেয়র আলহাজ্ব রফিকুল আলম, খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক দিতারুল আলম দিদার,শ্রম বিষয়ক সম্পাদক কামাল উদ্দিন পাটোয়ারী,জেলা শ্রমিকলীগের আহবায়ক নুরনবী,খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি টিকো চাকমা,সহ-সভাপতি মাঈনুল ইসলাম,শাহাব উদ্দিন ও দলের নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে নেতাকর্মীরা নিহতের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

জহির উদ্দিন ফিরোজের পিতা মো: ফিরোজ আহম্মেদ (ফিরোজ মাষ্টার) সোমবার (২৫ জুন) সন্ধ্যায় মাটিরাঙ্গাস্থ নিজ বাস ভবনে স্টোক করেন। পরে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে তিনি শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। মরহুম ফিরোজ মাষ্টার আওয়ামীলীগের দুঃসময়ের একনিষ্ঠ একজন কর্মী ছিলেন। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় মরহুমের নামাজে যানাজা শেষে কাজীপাড়া কবরস্থানে ফিরোজ আহম্মেদ এর দাপন সম্পূন্ন করা হবে তার পরিবার সূত্র জানান।